kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১০ আষাঢ় ১৪২৮। ২৪ জুন ২০২১। ১২ জিলকদ ১৪৪২

ইতিহাস, ভ্রমণ ও রাজনীতির পাঠ

আনিকা নওশীন, বিশ্বধর্ম ও সংস্কৃতি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

৭ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



ইতিহাস, ভ্রমণ ও রাজনীতির পাঠ

শুধু ইতিহাস নয়, একাধারে ভ্রমণকাহিনি ও বিশ্বরাজনীতি সম্পর্কে ধারণা মেলে ‘ইতিহাসের স্বপ্নভঙ্গ’ বইটিতে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে হিটলারের পতনের পর বিভক্ত জার্মান জাতি ১৯৯০ সালের ৩ অক্টোবর বিভেদ ভুলে বার্লিন দেয়ালের বাধা ভেঙে একত্র হয়, সেই চিত্র মেলে। দেশভাগের যন্ত্রণা জানেন সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়। তাই ঐতিহাসিক দিনটি সামনাসামনি দেখার লোভ সংবরণ করতে পারেননি। বিশ্বযুদ্ধের পর পূর্ব জার্মানি চলে যায় সোভিয়েত ইউনিয়নের দখলে আর পশ্চিম থাকে পশ্চিমা শক্তির তল্পিবাহক হয়ে। একদিকে সমাজতন্ত্র, অন্যদিকে ধনতন্ত্র। সমাজতন্ত্র সাম্যের কথা বললেও পূরণ করতে পারে না জনগণের চাহিদা। শুধু পূর্ব জার্মানি নয়, রুমানিয়া, হাঙ্গেরি, পোল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশে লেখক দেখেছেন সমাজতন্ত্রের অপব্যবহার। লেখক দেখেছেন কিভাবে এসব সভ্য দেশে অবাধে চলছে ঘুষ। খাবারের দোকানের সামনে লম্বা লাইন, নিত্যপণ্যের সংকট। কমিউনিজম এদের সুখী করতে পারেনি। অন্যদিকে লেখক মস্কোতে গেলে দেখতে পান সোভিয়েত ইউনিয়ন ভাঙনের সুর। একই সঙ্গে ইতিহাস, ভ্রমণকাহিনি, রাজনীতির মেলবন্ধন বইটিকে সুখপাঠ্য করেছে।

 অনুলিখন : পিন্টু রঞ্জন অর্ক



সাতদিনের সেরা