kalerkantho

শনিবার । ২৫ বৈশাখ ১৪২৮। ৮ মে ২০২১। ২৫ রমজান ১৪৪২

দেশভাগের শিল্পভাষ্য

জহুরুল ইসলাম, প্রভাষক, সরকারি আইনউদ্দীন কলেজ

১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



দেশভাগের শিল্পভাষ্য

হাসান আজিজুল হকের সাহিত্যজীবন দেশভাগের স্মৃতি, সামাজিক-রাজনৈতিক জীবনের প্রতিভাস্যস্বরূপ। তাঁর লেখায় প্রকাশ পায় দেশভাগের নির্মমতা। ‘আত্মজা ও একটি করবী গাছ’ গল্পগ্রন্থের শিরোনামের গল্পটি ছাড়াও পরবাসী, মারী, খাঁচা, একটি নির্জল কথা প্রভৃতি গল্পে দেশভাগের নির্মমতা ও দাঙ্গা-দুর্ভিক্ষের প্রতিচ্ছবি এঁকেছেন দক্ষ শিল্পীর মতো। কী মানবিক বিপর্যয়, কী বিপন্ন লাঞ্ছিত মানুষ, কী বিষক্রিয়ায় জর্জরিত মৃত্যুপথযাত্রীর নিনাদ—সব কিছুর মিথস্ক্রিয়া যেন গল্পকারের পাথেয়। তাঁর লেখার ভাষা সংযমী; কিন্তু বোধের জায়গায় বিস্তৃত। বোধ ও বোধনের এমন সমন্বয় খুব কম সাহিত্যিকের রচনায় দেখা যায়। দেশত্যাগী মানুষের ভেতর-বাইরে সব এক। গল্পের সমাপ্তি টানায় হাসান আজিজুল হক স্বতন্ত্র। তাইতো তাঁর বুড়ো ফুলের জন্য নয়, ফুলের বিচির জন্য অপেক্ষারত। যেটি ‘চমৎকার বিষে ভরা’ বলে ক্রূর নির্মমতাকে স্মরণ করিয়ে দেয়। সেটি জানতে আমাদের গল্প শেষের স্পর্শ নিতে হয়। আর লেখালেখির মতো এক তীব্র যন্ত্রণার শিল্পভাষ্য স্পষ্ট হয় গল্পকারের জবানিতে।



সাতদিনের সেরা