kalerkantho

শুক্রবার । ৩ বৈশাখ ১৪২৮। ১৬ এপ্রিল ২০২১। ৩ রমজান ১৪৪২

সেই দুঃসময়টাই এঁকেছেন মান্টো

মিলটন হাসান, সিরাজগঞ্জ

৫ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



সেই দুঃসময়টাই এঁকেছেন মান্টো

দেশভাগ, দাঙ্গা, বিচ্ছিন্নতা রূপায়ণে নিপুণ কথাশিল্পী সা’দত হাসান মান্টো। তাঁর ‘টোবা টেক সিং’ গল্পটিও সাতচল্লিশের দেশভাগ নিয়ে লেখা। দেশভাগের পর মানুষকে ধর্মের নামে বিভক্ত করে তাদের পৈতৃক ভিটামাটি ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছিল, যা পরবর্তী সময়ে উপমহাদেশে হিন্দু-মুসলমানদের মধ্যে ধর্মীয় বিদ্বেষ ও দাঙ্গা ছড়িয়েছিল। মান্টো সেই দুঃসময়টাই চিত্রিত করেছেন। দেশভাগের পর বেসামরিক কয়েদিদের মতো দুই দেশের পাগলাগারদের পাগলদেরও ধর্মীয় ভিত্তিতে বিনিময় করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এতে তাদের মধ্যে আতঙ্ক আর হাহাকার জেগে ওঠে। মূল চরিত্র বিষেণ সিংয়ের পরিণতির মাধ্যমে মানবতাবিরোধী এবং সাম্প্রদায়িকতার সেই ভয়ার্ত বিষয়টিই তুলে ধরেছেন লেখক। দেশভাগের সময়কার নানা ঘটনা ও রাষ্ট্রের মানবতাবিরোধী নীতিকে ব্যঙ্গ করেই লেখা গল্পটি। মান্টো বরাবরের মতো এই গল্পটিতেও ছিন্নমূল মানুষের জীবনের ঘটে যাওয়া তুচ্ছ ঘটনাকেও অপূর্ব মহিমায় প্রকাশ করেছেন। গল্পের বিষেণ সিংই সে সময়ের দুর্দশা আর বেদনায় জর্জরিত উপমহাদেশের ছিন্নমূল মানুষের প্রতীক।

মন্তব্য