kalerkantho

শুক্রবার । ৩ বৈশাখ ১৪২৮। ১৬ এপ্রিল ২০২১। ৩ রমজান ১৪৪২

দুটি কবিতা

মহাদেব সাহা

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



শীতরাত্রি

ঘুরতে ঘুরতে শালবনে শীতের রাত্রিতে, শীতে

                                    কাঁপে শালপাতা;

আহার, বিহার, বাদ্য কিছুই বুঝি না,

শীতের সময় বড় বিষণ্ন বিধুর;

 

শীতের পাহাড়ে কোনো পাখির উৎসব নেই, টানা

                                    হিমযুগ,

বরফের নদী যেন জ্যোত্স্নার তরঙ্গ

লোহার খনির মতো ধু ধু অন্ধকার

ঘরের ভেতরে যাব, শীতরাত্রি কপাট খোলে না

কার সাধ্য নিঃশব্দ শীতের রাত্রি অনুবাদ

                                    করে,

শীতের বিরহ প্রেম কেউ লিপিবদ্ধ করেনি কখনো;

 

বাল্যে আমি শীত রাতে কেনো কেঁদে ওঠি

শব্দ গন্ধ গুঞ্জন কিছুই জানি না;

মাঝে মাঝে মনে হয় শীতে কিছু সম্ভার পেয়েছি

শীতরাত্রি, সেই ঘ্রাণ তোমাকে দিলাম।

 

 

বড়ো কম সুখের সময়

সুখের সময় বড়ো কম, কখন ফুরিয়ে যায়, বোঝাও

                                                যায় না,

 

দেখতে দেখতে চলে যায় সুখের সময়

তারপর বিষাদে বিষাদে, বেদনায়;

 

জীবনে বড়ো কম সুখের সময়, বেশিটাই দুঃখময়

বেশিটাই বেদনা বিষাদ, অনন্ত অগাধ,

তা নিয়েই একটি জীবন, তা নিয়েই বেঁচে থাকতে হয়

আর কিছু নয়।

মন্তব্য