kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭। ১১ আগস্ট ২০২০ । ২০ জিলহজ ১৪৪১

মনে থাকা বই

সুনন্দর জার্নাল

৩ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুনন্দর জার্নাল

‘সুনন্দর জার্নাল’ লিখতেন নারায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়। বাংলা সাহিত্যের সব শাখায় এই সাহিত্যিক তাঁর প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন। যেমন উপন্যাস ছোটগল্পে, তেমন গবেষণাধর্মী ও আলোচনা গ্রন্থে, তেমন সরসগদ্য রচনায় ও নাটকে। একাধারে বাংলা শিশুসাহিত্যের অগ্রগণ্য লেখকও তিনি। শিশুসাহিত্যে তাঁর অমর সৃষ্টি ‘টেনিদা’ চরিত্র। ‘টেনিদা’ সিরিজ লিখে তিনি ছোটদের জগৎ মাত করে দিয়েছেন। এখনো বিপুল জনপ্রিয় তাঁর ‘টেনিদা’। ছোটদের আরেকটি বইয়ের কথা এই মুহূর্তে মনে পড়ছে। বইটির নাম ‘পঞ্চাননের হাতি’। খুবই মজাদার বই। ছোটদের মতো বড়রাও পড়ে মুগ্ধ হয়ে যাবে। নারায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়ের বিখ্যাত উপন্যাস শিলালিপি, উপনিবেশ, নির্জন শিখর, মহানন্দা। ছোটগল্প টোপ, বনজ্যোত্স্না, হাড়, বনতুলসী, কালাবদর ইত্যাদি। বিশ্বের যাবতীয় ভালো ছোটগল্প নিয়ে তাঁর অসামান্য আলোচনা গ্রন্থ ‘সাহিত্যে ছোটগল্প’। অধ্যাপক হিসেবে ছিলেন অত্যন্ত জনপ্রিয়। বাংলা সাহিত্যের এই বিশাল প্রতিভা ১৯৭০ সালে দেশ পত্রিকায় প্রতি সপ্তাহে লিখতেন ‘সুনন্দর জার্নাল’। অত্যন্ত সরস ভঙ্গিতে কলকাতা শহরের নানাবিধ সমস্যা এবং সাধারণ মানুষের জীবন যাপনের চিত্র থাকত এই জার্নালে। ৭ নভেম্বর ১৯৭০ শেষ লেখাটি লিখেছিলেন তিনি। সেই লেখার শেষ কয়েকটা লাইন ছিল এই—‘আমাদের গৃহের অদূরে যে সঙ্গীতসুধা এবং বোমাধ্বনি উৎসারিত হচ্ছে, তা নাকি আরও তিন দিন চলবে। সুতরাং অসুস্থ শরীরে জার্নাল লিখতে লিখতে ভাবছি পরের সংখ্যায় ‘সুনন্দের পাতাটি’ যদি না থাকে তাহলে জানবেন, আর একটি কমনম্যান বাঙালীর অবলুপ্তি বা আত্ম-বিসর্জন ঘটল।’ আশ্চর্যজনকভাবে পরদিনই লোকান্তরিত হন তিনি। নারায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়ের স্ত্রী আশা দেবীও ছোটদের একজন প্রিয় লেখক।

‘সুনন্দর জার্নাল’ নতুন তৃতীয় সংস্করণ প্রকাশিত হয় পৌষ ১৩৭৮ সালে। প্রকাশক কলকাতার গ্রন্থ প্রকাশ। প্রচ্ছদ চণ্ডী লাহিড়ী। দাম ৬ টাকা ৫০ পয়সা। উৎসর্গ শ্রীযুক্ত মনোজ বসু পূজনীয়েষু। শেষ জার্নালটি লেখার পরদিনই লোকান্তরিত হওয়ার কারণে ওই লেখাটি ব্যাপক আলোচিত হয়েছিল। তৃতীয় সংস্করণের প্রকাশক তাই লেখাটি বইয়ের শুরুতেই নিয়ে এসেছেন। প্রচ্ছদে নারায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়ের নাম নেই। ভেতরে আছে।

বই কথক

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা