kalerkantho

রবিবার । ২২ চৈত্র ১৪২৬। ৫ এপ্রিল ২০২০। ১০ শাবান ১৪৪১

তিমিরযাত্রা

বাংলাদেশের নতুন গল্প নিয়ে

মুহাম্মদ মেহেদী হাসান
তিমিরযাত্রা : মোজাফ্ফর হোসেন। প্রকাশক : পাঞ্জেরী পাবলিকেশনস। প্রচ্ছদ : গৌতম ঘোষ। মূল্য : ২৭০ টাকা

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশের নতুন গল্প নিয়ে

একুশে গ্রন্থমেলায় প্রকাশিত হয়েছে মোজাফ্ফর হোসেনের প্রথম উপন্যাস ‘তিমিরযাত্রা’। পাঁচটি গল্পগ্রন্থ প্রকাশের পর এটি তাঁর প্রথম উপন্যাস। বাংলাদেশের নতুন ধারার গল্প বলছি এ কারণে যে উপন্যাসে আমরা দেখব তিনি পঁচাত্তর-পরবর্তী বাংলাদেশের অবক্ষয়ের চিত্র তুলে ধরেছেন তিনজন অসুস্থ মানুষের বয়ানে। তিনজন চরিত্র কোনো না কোনোভাবে মুক্তিযুদ্ধের সৃষ্টি। উপন্যাসের নায়ক যৌনপরিচয় খুঁজে বেড়াচ্ছে। একসময় সে নিজেকে আবিষ্কার করে সমকামী হিসেবে। কিন্তু এর জন্য তার মাকে সে দায়ী করে। মা বিকৃত যৌনাচারে অভ্যস্ত। স্মৃতিভ্রষ্ট বাবা ঘরের মধ্যে একা বসে থাকে। কারো সঙ্গে কথা বলে না। মাঝেমধ্যে অন্ধকারে নিজের যৌনাঙ্গের দিকে তাকিয়ে থাকে। জানা যায়, তিনি মুক্তিযোদ্ধা, যুদ্ধে নপুংসক হয়ে গেছেন। তাহলে প্রশ্ন আসে, নায়কের জন্ম হলো কী করে? এখানে এসে পাঠক চমকে যাবেন নায়কের জন্মপরিচয় জেনে। নায়কের মা-বাবার অন্য পরিচয় সামনে চলে আসবে। উপন্যাসের নায়ক বাবার যুদ্ধজীবনের কথা উদ্ঘাটন করবে কতগুলো বিস্মৃত মানুষের স্ববিরোধী বয়ানে। পাঠক চাইলে বিশ্বাস করতে পারে, আবার না-ও পারে। এর মধ্যে উঠে আসে নায়কের বাবার গ্রামের মানুষের ধর্মীয় বিষয়—আহলে হাদিস ও হানাফি মাজহাবের ভেতরকার দ্বন্দ্ব, সামাজিক-রাজনৈতিক অবক্ষয়ের চিত্র। বাংলাদেশের ডিসটোপিয়ান ঘরানার এই উপন্যাসে লেখক স্বাধীনতার পর একটা দেশ দুর্নীতি-বৈষম্যের দিকে ঝুঁকে পড়ল কেন, কেন সাম্প্রদায়িক চেতনা ফিরে এলো, স্বাধীনতার অগ্রনায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নির্মমভাবে হত্যার শিকার হলেন কেন—এসব প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা করেছেন। তিনি মোটা দাগে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেননি। উপন্যাসটির এক অর্থে কোনো সূচনা বা সমাপ্তি নেই। আমাদের সামাজিক-রাজনৈতিক-ধর্মীয় ও যৌনজীবনের এক ধরনের অসমাপ্ত গল্প লেখক তুলে ধরেছেন। গল্পের শুরু এবং শেষ যেন একটা চক্রের ভেতর ঘুরপাক খেতে থাকে। উপন্যাসটির বিষয় চরম বাস্তব হলেও লেখক তাঁর ছোটগল্পের মতো অব্যাখ্যাত অনেক ঘটনার ইঙ্গিত দিয়েছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা