kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

জন্মদিনের প্রথম সকাল

নাসির আহমেদ

৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধোঁয়া উড়ছে উনুনে, ভোরবেলার কুয়াশা আর ধোঁয়া একাকার

কোন দিকে পথ বোঝা মুশকিল। গ্রামের ঘন জঙ্গলের

মধ্য দিয়ে যেতে যেতে থমকে দাঁড়াই; কোথায় যেন

ছিল আমার ছেলেবেলার বাড়ি, খুঁজে পাচ্ছি না আর।

 

দেখতে দেখতে এত বেলা হয়ে গেল, তবু সূর্য ওঠে না

ধোঁয়া আর কুয়াশাচ্ছন্ন বাগানের একফালি পথ

পাড়ি দিয়ে খুঁজছি নিজের বাড়ি, হারানো শৈশব

এর মধ্যে পার হয়ে গেল এতগুলো বছর! শৈশব-কৈশোর।

 

ভাটিয়ালি মারফতি মুর্শিদি গানগুলো ওই আলপথে

শুনেছি অনেক, গেয়েছি নিজেও, আজ আর সুখ-দুঃখের

সেই গানগুলোর একটিও আসছে না মনে, কী নির্মম

বিস্মরণে মুছে গেছে বারোমাইস্যা বিরহের সেইসব গান।

 

দিন চলে যায়, দিন চলে যাবে—ঘনাবে সন্ধ্যা, আসব আমি

আবার এখানে এই ঘন সবুজের কাছে, গাঢ় কুয়াশায় মুছে যাবে পথ

ধোঁয়ার কুণ্ডলি পার হয়ে ঘাসের আড়ালে মুছে যাবে সব পদচিহ্ন

তবু আশা করে আছি একগুচ্ছ ফুলের মতো উজ্জ্বল স্মরণ শিয়রে।

 

জন্মসূত্র খুঁজতে খুঁজতে মা-বাবার কবরের পাশে এসে দাঁড়াব

দূর পাড়াগাঁর কাছে আবার এসেছি বুনো ঝোপঝাড় পার হয়ে

কবেকার ফেলে আসা গুচ্ছ গুচ্ছ স্মৃতির সন্ধানে, ফিরে

যাবার আগে জেনে যেতে চাই জন্মদিনের প্রথম সকাল

 

সূর্যের জন্ম নেই, চন্দ্রের জন্ম নেই, মৃত্যুও  নেই—এই কথা ভেবে

জন্মের বৃত্ত ঘুরে মৃত্যু আসে চেতনায়, মানুষ দুঃখিত নয়, মানুষ মরে না।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা