kalerkantho

শুক্রবার ।  ২৭ মে ২০২২ । ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৫ শাওয়াল ১৪৪

ঐতিহ্যবাহী লোকজ খেলার আয়োজন

আদর রহমান   

২৯ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঐতিহ্যবাহী লোকজ খেলার আয়োজন

ঐতিহ্যবাহী লোকজ খেলার আয়োজন করে রংপুর জেলা শাখা

রংপুর জেলার গঙ্গাচড়া উপজেলার মহিপুরে শেখ হাসিনা তিস্তা সেতুর নীচের প্রতিরক্ষা বাঁধে তখন খুব হইহুল্লোর চলছে। গত ২০ জানুয়ারি স্বাস্থবিধি মেনে সারাদিন এমনই হৈ হুল্লোরে মেতে ছিল রংপুর শুভসংঘের বন্ধুরা। ইচিং বিচিং খেলার মধ্য দিয়ে দিনের শুভসুচনা হয়। এরপর চলে হারিয়ে যাওয়া নানা লোকজ খেলার আয়োজন।

বিজ্ঞাপন

হাডুডু, বউচি, গোল্লাছুট আরও কত কী। হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্যকে ফিরিয়ে আনতেই এমন আয়োজন বলে জানান শুভসংঘের আয়োজক বন্ধুরা। গল্প ও গান গাওয়া থেকে শুরু করে কবিতা আবৃতি ও নাচের মধ্য দিয়ে সারাদিন কেটে যায়। কেউ আবার তিস্তা নদীতে নেমে খালি পায়ে বালুর মধ্যে হেটে বেরিয়েছে। এই আয়োজনে রংপুর জেলার সকল উপজেলার শুভসংঘের বন্ধুরা অংশগ্রহন করেন।  

বাংলাদেশসহ ভারত উপমহাদেশের গ্রামীণ খেলাধুলাগুলো হারিয়ে যাচ্ছে। দেশের প্রত্যন্ত্ম অঞ্চলে এলাকাভিত্তিক প্রাচীন খেলাগুলো এক সময় খুবই জনপ্রিয় ছিল। সাধারণত এসব খেলায় শৈশবের দুরন্তপনায় মেতে থাকত ছেলে-মেয়েরা।

ডিজিটালাইজেশনের ছোঁয়ায় ঐতিহ্যবাহী লোকজ খেলাগুলো আজ বিলুপ্তির পথে। শহুরে কিশোর-কিশোরীদের কাছে অজানা এসব খেলার আদি-অন্ত। তাই শুভসংঘের বন্ধুরা এইসব খেলার আয়োজন করে। সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে ছিল রংপুর জেলা শুভসংঘের সভাপতি ইরা হক।



সাতদিনের সেরা