kalerkantho

সোমবার । ৩ মাঘ ১৪২৮। ১৭ জানুয়ারি ২০২২। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বামনায় হানাদারমুক্ত দিবস পালিত

মনোতোষ হাওলাদার   

৪ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বামনায় হানাদারমুক্ত দিবস পালিত

বামনা হানাদারমুক্ত দিবসের শোভাযাত্রা

বরগুনার বামনা উপজেলায় শুভসংঘের উদ্যোগে হানাদারমুক্ত দিবস পালিত হয়েছে। গত ২৪ নভেম্বর দিবসটি উপলক্ষে সেদিনের ভয়াবহ যুদ্ধের স্মৃতিচারণা করেন বীর মুক্তিযোদ্ধারা। আয়োজনে শুভসংঘ ছাড়াও বামনা উপজেলা যুব রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আমাদের পাঠাশালা অংশগ্রহণ করে।

সকাল ১১টায় একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা উপজেলার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে গোলচত্বরের স্মৃতিসৌধে স্মৃতিচারণা অনুষ্ঠান হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আমীর হোসেন খান, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুভাষ চন্দ্র হাওলাদার, বামনা থানার ওসি মো. বশিরুল আলম, বামনা প্রেস ক্লাব সভাপতি ওবায়দুল কবির আকন্দ দুলাল, উপজেলা শুভসংঘের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রাহবার, বামনা উপজেলা যুব রেড ক্রিসেন্ট সভাপতি মো. হাসিবুর রহমান, আমাদের পাঠশালার সভাপতি শেখর হাওলাদারসহ শুভসংঘ, রেড ক্রিসেন্ট ও আমাদের পাঠশালার সদস্যরা।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আমীর হোসেন খান বলেন, ২৪ নভেম্বর ১৯৭১ ভোরে মুক্তিকামী যোদ্ধারা পাকিস্তানিদের হাত থেকে বামনাকে মুক্ত করার জন্য থানা ভবনে আক্রমণ চালান। পাকিস্তানি ও রাজাকার বাহিনী তাঁদের প্রতিহত করার চেষ্টা করে; কিন্তু অদম্য মুক্তিযোদ্ধারা থানার উত্তর দিকে আকনবাড়ির বাগান ও দক্ষিণ দিকে সারওয়ারজান হাই স্কুল ও পশ্চিমে সদর মসজিদের চারদিকে একটি বেষ্টনী বলয় গড়ে থানা লক্ষ্য করে গুলি চালান। কিছুক্ষণ পরই অদম্য মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে পাকিস্তানি সেনারা আত্মসমর্পণ করে। কয়েকজন রাজাকার ও পাকিস্তানি সেনা এ যুদ্ধে নিহত হয়। ওই দিনই বামনা থানার পতাকাস্তম্ভে মুক্তিযোদ্ধারা বাংলাদেশের লাল-সবুজ পতাকা উত্তোলন করে বামনাকে শত্রুমুক্ত ঘোষণা করেন।



সাতদিনের সেরা