kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ জানুয়ারি ২০২০। ৯ মাঘ ১৪২৬। ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১          

প্রচ্ছদ রচনা

রঙিলা বিয়ে

৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রঙিলা বিয়ে

এখন সবচেয়ে বেশি বদলাচ্ছে বর-কনের পোশাকের রং। সাজেও নেই গত্বাঁধা নিয়মের বালাই। লিখেছেন পারসোনার পরিচালক নুজহাত খান

মডেল : সাফা কবির ও রাব্বী;  স্টাইলিং ও কনসেপ্ট : নুজহাত খান

সাফা কবিরের পোশাক : রীলা’স; রাব্বীর পোশাক : ওটু

গয়না : স্পার্কেল; কৃতজ্ঞতা : টিম ক্যানভাস; ছবি : কাকলী প্রধান

বিয়ের বিশেষ পর্বগুলোর মেকআপে ট্র্যাডিশনের সঙ্গে হাত মেলাচ্ছে ট্রেন্ড। কখনো জমকালো, কখনো মিনিমালিস্টিক অ্যাপ্রোচ। বিয়ের চিরায়ত সাজের গণ্ডি ভেঙে নতুন কিছু করে দেখানোর চেষ্টাই এখন দৃশ্যমান। ব্রাইডাল লুকও যে বৈচিত্র্যময় হয়ে উঠতে পারে, সেই বার্তা দিচ্ছেন হালের বর-কনে।

প্রথার বাইরে

স্বতন্ত্র স্টাইল স্টেটমেন্ট তৈরিতে হালের কনেদের কাছে এখন দারুণ জনপ্রিয় এই সাজকৌশল। বিভিন্ন দেশ বা প্রদেশের বিয়ের ট্র্যাডিশনাল রীতি মেনে তৈরি একেকটি এক্সপেরিমেন্টাল লুকে ঝুঁকছেন অনেকে। কাশ্মীরি বা আফগানি সাজ রয়েছে তালিকার শীর্ষে। ঐতিহ্যবাহী পোশাক আর গয়নার সঙ্গে উজ্জ্বল মিনিমালিস্টিক মেকআপই এর প্রধান সূত্র। উজ্জ্বল সাহসী রঙে সলাজ ভাব চোখে, ঠোঁট হালকা।

কমেই কমনীয়

রঙের জৌলুস এড়িয়ে মিনিমাল মেকআপ। সহজ, নরম আর লাবণ্যময়। বউ মানেই যে লাল টুকটুকে হবে বা আঁটসাঁট করে বাঁধতে হবে চুল, সে রেওয়াজে বিশ্বাসী নন আধুনিক কনেরা। আকাশের নীল বা প্রান্তরের সবুজ— যেকোনো রঙেই সমান সুন্দর ও আবেদনময়ী তাঁরা। কার্ল করে ছেড়ে রাখা এলো চুলও লাগে দৃষ্টিনন্দন।

জবরদস্ত জমকালো

জমকালো সাজে কনে। উজ্জ্বল মায়ামাখা মুখে প্রমিনেন্ট করে তোলা হয়েছে ঠোঁট। গাঢ় লালে রঞ্জিত। চোখের সোনারঙা আভা উসকে দিচ্ছে কাজলকালো ধোঁয়াশা ভাব। কপালে ছোট্ট টিপ। হালকা কাঁপানো চুলে টান টান করে বাঁধা খোঁপা। তাতে ফুটেছে ফুল।

ঐতিহ্যের আভায়

বিয়ের প্রতিটি পর্বে বর সাজেন কনের  পোশাকের সঙ্গে ম্যাচিং বা কন্ট্রাস্টে। সেখানে কখনো আসে ঐতিহ্যের ধারা, কখনো দেশ-বিদেশের রীতি, কখনো বা একেবারেই চমক লাগানো নতুন কোনো লুক।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা