kalerkantho

বুধবার । ২৫ চৈত্র ১৪২৬। ৮ এপ্রিল ২০২০। ১৩ শাবান ১৪৪১

মাদরাসা ভবন নিয়ে বিরোধ

বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাঁশখালীতে ব্যক্তি মালিকানাধীন জমিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাদরাসা ভবন নির্মাণকাজ চলছে। এ ঘটনায় দুপক্ষে উত্তেজনা বিরাজ করছে। উপজেলার মিনজিরীতলা গ্রামের ৭৬ বছরের বৃদ্ধ মো. খাইরুজ্জামান অভিযোগ করেছেন, তাঁর ১৪ শতক জায়গা মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. আব্দুল্লাহ, আবু তাহের ও আজগর হোসেন দীর্ঘদিন ধরে দখলে নেওয়ার চেষ্টা চালান। বাধা দিলে বিভিন্ন সময় নানাভাবে হামলা ও নির্যাতনের শিকার হন তিনি।

সরল ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. রশিদ চৌধুরী বলেন, ‘সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী তদবির করে ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকা ব্যয়ে মাদরাসা ভবন নির্মাণের বরাদ্দ মঞ্জুর করেন। নির্মাণকাজ পায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আইডিয়াল হাসান। নির্মাণাধীন মাদরাসা ভবনের কিছু জমি মো. খাইরুজ্জামানের। মাদরাসা ভবন নির্মাণের স্বার্থে ওই জমির টাকা নিয়ে যাওয়ার জন্য তাঁকে ডাকা হলেও তিনি আসেননি। জমির টাকা নিতে অস্বীকৃতি জানান। শিক্ষার্থীদের কল্যাণে মাদরাসা নির্মাণ হচ্ছে।’

ঠিকাদার মাকসুদুল হাসান বলেন, ‘আদালতের নিষেধাজ্ঞার বিষয় আমি জানি না। মাদরাসা কর্তৃপক্ষ আমাদের জমি বুঝিয়ে দিয়েছে। ওই জমিতে আমরা মাদরাসাভবন নির্মাণ করছি।’

মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. আব্দুল্লাহ বলেন, ‘এলাকায় শিক্ষা বিস্তারের জন্য মাদরাসা ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছে। আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। এটা অন্যায় নয়। আমরা যাবতীয় কাগজপত্র ও তথ্য দিয়ে আদালতে হাজির হব।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা