kalerkantho

শনিবার । ১০ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৮ জমাদিউস সানি ১৪৪১

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে নানা আয়োজন

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র সংসদ নির্বাচন চায় ছাত্রসেনা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২২ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইসলামী ছাত্রসেনা প্রতিষ্ঠার চার দশক পূর্তিতে চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্থানে মঙ্গলবার নানা কর্মসূচি পালন করা হয়। আলোচনায় বক্তারা দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দাবি করেন।

চট্টগ্রাম উত্তর জেলার আয়োজনে মঙ্গলবার হাটহাজারী অদুদিয়া সুন্নিয়া ফাজিল মাদরাসা ময়দানে ছাত্র সমাবেশ মুহাম্মদ মফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামী ফ্রন্ট চেয়ারম্যান আল্লামা এম এ মান্নান। উদ্বোধক ছিলেন ইসলামী ফ্রন্ট প্রেসিডিয়াম সদস্য পীরে তরিক্বত সৈয়দ মছিহুদ্দৌলা। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইসলামী ফ্রন্ট প্রেসিডিয়াম সদস্য আল্লামা কাযী মঈনুদ্দিন আশরাফী, অ্যাডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ এনামুল হক ছিদ্দিকী, উত্তর জেলা যুবসেনা সভাপতি মাস্টার মুহাম্মদ ইসমাইল ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আলমগীর হোসাইন। প্রধান বক্তা ছিলেন ইসলামী ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ইমরান হোসাইন তুষার।

এম এ মান্নান বলেন, ‘চার দশক ধরে ছাত্রসেনা আদর্শিক পথে ছাত্র সমাজকে আদর্শিকভাবে উজ্জীবিত ও উদ্দীপ্ত করে আসছে।’

আলোচক ছিলেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ মাওলানা জসিম উদ্দিন আল কাদেরী, মাওলানা মীর আবদুর রহিম মুনিরী, মাওলানা আব্দুল খালেক

আল-কাদেরী, মাওলানা আলী শাহ নেছারী, মুহাম্মদ মঈনুল আলম চৌধুরী, অধ্যাপক সৈয়দ গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ।

এদিকে চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর শাখার চার দিনব্যাপী কর্মসূচির সমাপনী দিবসে মঙ্গলবার ছাত্রসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর সভাপতি মুহাম্মদ নঈমুল ইসলাম।

মঙ্গলবার বিকেলে আন্দরকিল্লা চত্বরে ছাত্রসেনা নগর উত্তর সভাপতি মুহাম্মদ গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে ছাত্রসমাবেশ উদ্বোধন করেন ইসলামী যুবসেনার কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুহাম্মদ আবু আজম। প্রধান বক্তা ছিলেন ইসলামী ছাত্রসেনা কেন্দ্রীয় গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক মুহাম্মদ মাছুমুর রশিদ কাদেরী। মুহাম্মদ এরশাদুল করিম ও কাজী মুহাম্মদ আরাফাতের সঞ্চালনায় সমাবেশে অতিথি ও আলোচক ছিলেন মুহাম্মদ ফজলুল করিম তালুকদার, আবু নাসের মুহাম্মদ তৈয়ব আলী প্রমুখ। পরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা নগরের আন্দরকিল্লা হয়ে লালদিঘি মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা