kalerkantho

সোমবার । ২০ জানুয়ারি ২০২০। ৬ মাঘ ১৪২৬। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

সেমিনারে মেয়র

ভ্যাট দিন, উন্নয়নে সহযোগিতা করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ভ্যাট দিন, উন্নয়নে সহযোগিতা করুন

জাতীয় ভ্যাট দিবসের সেমিনারে বক্তব্য দেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। ছবি : কালের কণ্ঠ

জনগণকে ভ্যাট, ট্যাক্স দিয়ে উন্নয়নকাজে সহযোগিতার আহ্বান জানিয়েছেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। তিনি বলেন, ‘আমাদের মানসিকতায় পরিবর্তন নিয়ে আসা উচিত। রাষ্ট্র ব্যবসা করে না। সরকার বিনা মূল্যে বই দিচ্ছে। বড় বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। জনগণ সুফল পাচ্ছে।’

মঙ্গলবার ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে জাতীয় ভ্যাট দিবসের সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ভ্যাট কমিশনার

মোহাম্মদ এনামুল হকের সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য মারগুব আহমেদ। বক্তব্য দেন চট্টগ্রামের কর কমিশনার ইকবাল হোসেন, আবুল কালাম কায়কোবাদ, মুনতাসির বিল্লাহ, বন্ড কমিশনার মাহবুবুজ্জামান, চট্টগ্রাম উইম্যান চেম্বারের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবিদা মোস্তফা। এর আগে সকালে ভ্যাট দিবস ও সপ্তাহ উপলক্ষে আগ্রাবাদের সিজিও ভবন থেকে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়।

দেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করা হচ্ছে দাবি করে মেয়র বলেন, ‘আমাদের মধ্যে অপপ্রচার আছে, বিভ্রান্তি আছে। বাংলাদেশের অস্তিত্বে যারা বিশ্বাস করে না তারা সুযোগের অপেক্ষায় আছে। আমাদের অর্থনৈতিক উন্নয়নের কারণে মর্যাদা বেড়েছে। আমাদের ওপর নির্ভর করবে কত দ্রুত দেশ এগিয়ে যাবে। উন্নত বিশ্বে আইনের প্রয়োগ আছে, সবাই আইন মেনে চলে। আমাদেরও আইন মানতে হবে। ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। সংকীর্ণতা পরিহার করে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশ বিনির্মাণে ভূমিকা রাখতে হবে।’

কর অঞ্চল-৩ এর কমিশনার সৈয়দ মোহাম্মদ আবু দাউদ বলেন, ‘স্বাধীনতার আগের প্রজন্ম জানে, বটমলেস বাস্কেট বলা হয়েছিল আমাদের দেশকে। ৪০ বছর পর সেই দেশ সামাজিক নিরাপত্তার নজির হয়েছে। এর নায়ক করদাতারা।’

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বারের সহসভাপতি এ এম মাহবুব চৌধুরী বলেন, ‘আগে যখন ভ্যাট ছিল না তখন দেশে উন্নয়নও ছিল না। ট্যাক্স না দিলে উন্নয়ন হবে না। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ট্যাক্স ও ভ্যাটের টাকায় পদ্মা সেতু হচ্ছে।’

চট্টগ্রাম চেম্বারের পরিচালক অঞ্জন শেখর দাশ বলেন, ‘ভ্যাট প্রদান সহজ থেকে সহজতর হোক এটা চাই। কস্ট অব ডুয়িং বিজনেস কমাতে ডুয়েল ভ্যাট যাতে না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।’

নারী উদ্যোক্তা রুহি মোস্তফা বলেন, ‘সরকার চায় নারীরা স্বাবলম্বী হোক। আমি যা বিক্রি করছি সব তো লাভ নয়। আমি উপকরণ কিনতে ভ্যাট দিচ্ছি, বিক্রির ওপর ভ্যাট দিচ্ছি। ভ্যাট সম্পর্কে জানার জন্য নারী উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া যেতে পারে।’

জাতীয় পর্যায়ে সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান কক্সবাজারের ওশান প্যারাডাইস, খাগড়াছড়ির ফোর স্টার এন্টারপ্রাইজ ও অরণ্য বিলাস, পটিয়ার বনফুল অ্যান্ড কম্পানি, ষোলশহরের ব্র্যাক আড়ং, সীতাকুণ্ডের চৌধুরী টি ওয়্যার হাউস ও বান্দরবান সদরের হোটেল হিলভিউ রেসিডেন্সিয়ালকে পুরস্কার দেন অতিথিরা।

স্থানীয় পর্যায়ে আবুল খায়ের স্টিল মেল্টিং লিমিটেড, কর্ণফুলীর সুপার পেট্রো কেমিক্যাল লিমিটেড, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ, এনঅ্যান্ডএন টি ওয়্যারহাউস, এম এম ইস্পাহানি লিমিটেড ও উত্তরা মোটরস লিমিটেডকে পুরস্কৃত করা হয়। বিশেষ সম্মাননা দেওয়া হয় বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনকে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা