kalerkantho

মঙ্গলবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১২ রবিউস সানি     

পানির খোঁজে সীতাকুণ্ডের লোকালয়ে

গ্রামবাসী পিটিয়ে মারল ভালুকছানা

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গ্রামবাসী পিটিয়ে মারল ভালুকছানা

সীতাকুণ্ডে গ্রামবাসীর হাতে প্রাণ হারাল ভালুকছানাটি। ছবি : কালের কণ্ঠ

পানির খোঁজে পাহাড় থেকে সমতলে এসেছিল ভালুকছানা। দেখতে পেয়ে তাকে ধরার চেষ্টা করে স্থানীয় এক যুবক। তার হাতে কামড় ও আঁচড় দিয়ে পালানোর চেষ্টা করলেও শেষ রক্ষা হয়নি ছানাটির। এলাকাবাসী পিটিয়ে হত্যা করে। সোমবার দুপুরে সীতাকুণ্ড উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের শীতলপুর পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার ঘটনাটি জানাজানি হলে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

স্থানীয়রা জানান, একটি ভালুকছানা পাহাড় থেকে নেমে এসে ছড়ায় পানি পান করছিল। এ সময় ওই এলাকার খলিল আহমেদের ছেলে ইকবাল হোসেন (২৬) ভালুকটি আটকের চেষ্টা করে। তাকে কামড় ও আঁচড় দিয়ে পালিয়ে যেতে চেষ্টা করলেও এক পর্যায়ে স্থানীয়রা ভাল্লুকটিকে পিটিয়ে হত্যা করে। পরে এটি দড়িতে বেঁধে ঝুলিয়ে রাখা হয়। খবর পেয়ে কিছু মারমা যুবক ব্যাগে ভরে নিয়ে যায় ছানাটি। আহত ইকবালকে ফৌজদারহাট বিআইটিআইডিতে ভর্তি করা হয়। তার ভাই জাহেদুল ইসলাম সম্রাট ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ঘটনাস্থলের পার্শ্ববর্তী এলাকার ত্রিপুরা সর্দার কাঞ্চন ত্রিপুরা বলেন, ‘শুনেছি ভালুকটি পানি পান করে চলে যাওয়ার সময় এলাকাবাসী পিটিয়ে হত্যা করে।’

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. শাহজালাল মো. ইউনুস এটি ভালুকছানা বলে নিশ্চিত করেন।

শীতলপুর বনবিট কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন মঙ্গলবার বলেন, ‘ঘটনাটি সাংবাদিকদের কাছে জেনেছি। পরে খোঁজ নিয়ে জানলাম স্থানীয়রা ভালুকছানাটিকে পিটিয়ে মেরেছে। কিন্তু সেটি কারা নিয়ে গেল তা খুঁজে বের করতে পারিনি।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা