kalerkantho

মঙ্গলবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১২ রবিউস সানি     

রাষ্ট্রপতি আসছেন আজ

পুলিশের কঠোর নিরাপত্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুলিশের কঠোর নিরাপত্তা

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) চতুর্থ সমাবর্তনে যোগ দিতে আজ বুধবার চট্টগ্রামে আসছেন। আগামীকাল বৃহস্পতিবার চুয়েট প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে সমাবর্তন। বুধবার বিকেলে হেলিকপ্টারে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে পৌঁছানোর কথা রয়েছে রাষ্ট্রপতির।

রাষ্ট্রপতির চট্টগ্রাম আগমন, সার্কিট হাউসে রাতযাপন, পরদিন বৃহস্পতিবার রাউজানে পৌঁছে সমাবর্তনে যোগ দেওয়া এবং পরবর্তীতে হেলিকপ্টার যোগে ঢাকায় ফিরে যাওয়া পর্যন্ত সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চট্টগ্রাম নগর ও জেলা পুলিশ পৃথকভাবে নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নগর ও জেলা পুলিশের নিয়োজিত ফোর্স ছাড়াও রেঞ্জ পুলিশ থেকে অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন করা হচ্ছে।

রাষ্ট্রপতি দুপুরের পর ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারযোগে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন। বিকেলের মধ্যেই তিনি চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় পৌঁছবেন। সেখান থেকে তাঁকে বিশেষ নিরাপত্তা দিয়ে নিয়ে আসা হবে নগরের সার্কিট হাউসে। এখানে তিনি রাতযাপন করবেন। আবার পরদিন সমাবর্তন অনুষ্ঠান শুরুর আগে তিনি চুয়েট এলাকায় পৌঁছবেন।

নগর পুলিশের নিরাপত্তার বিষয়ে পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মহামান্য রাষ্ট্রপতির চট্টগ্রামে আগমন উপলক্ষে পুলিশ ব্যাপক নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে গোয়েন্দা পুলিশ, বিশেষায়িত ইউনিট সোয়াত, কাউন্টার টেররিজমসহ পুলিশের সব কটি ইউনিট মাঠে নামছে।’ এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘নগর পুলিশ বুধবার থেকে মহামান্য রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তা দেওয়া শুরু করবে। দুপুরের আগেই সমস্ত ফোর্স মাঠে নামবে। ইতোমধ্যে নিরাপত্তামূলক সব প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রম শেষ হয়েছে।’

রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তায় প্রস্তুতি সম্পন্ন করার বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মহামান্য রাষ্ট্রপতি চুয়েট যাবেন। এ উপলক্ষে নিরাপত্তামূলক কার্যক্রম শেষ হয়েছে। নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে জেলা পুলিশ ছাড়াও রেঞ্জ পুলিশ থেকে অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন করা হচ্ছে। সমাবর্তন অনুষ্ঠান শেষে তিনি হেলিকপ্টারযোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম ত্যাগ করবেন।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা