kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ হত্যা স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি   

২২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামী রবিউল ইসলামকে (২৫) মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তাঁকে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ডও দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার সকালে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক এবং খাগড়াছড়ি জেলা ও দায়রা জজ রেজা মো. আলমগীর হোসেন এই রায় ঘোষণা করেন। এ সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। মামলা চলাকালীন আসামির স্বীকারোক্তি এবং ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত এই রায় দেন।

২০১৬ সালের ২৫ আগস্ট রাতে খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার কেয়াংঘাট ইউনিয়নের নতুনপাড়া এলাকায় স্ত্রী ময়না আক্তারকে (১৯) শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন স্বামী রবিউল ইসলাম। এ ঘটনায় নিহত ময়নার বাবা মাইনুল হক বাদী হয়ে মেয়ের জামাইসহ অজ্ঞাত ৪/৫ জনকে আসামি করে মহালছড়ি থানায় মামলা দায়ের করেন। ঘটনার তিন মাস পর একই বছরের ২০ নভেম্বর রবিউলকে একমাত্র আসামি করে আদালতে চার্জশিট দিয়েছিল পুলিশ।

এদিকে এই রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট বিধান কানুনগো।

উল্লেখ্য, গত ৫ দিনের ব্যবধানে এমন তিনটি রায় হয়েছে খাগড়াছড়িতে। ১৭ নভেম্বর একই আদালতের বিচারক স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার আদেশ ঘোষণা করেন। এ ছাড়া বুধবার বাবাকে খুনের দায়ে ছেলের মৃত্যুদণ্ড দেন খাগড়াছড়ি জেলা ও দায়রা জজ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা