kalerkantho

শনিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৭। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১ সফর ১৪৪২

লামা

১০ দিনের মাথায় ফের হাতির মৃতদেহ উদ্ধার

লামা (বান্দরবান) প্রতিনিধি   

১৭ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় বাচ্চা হাতির মৃতদেহ পাওয়া গেছে। শনিবার সকালে কুমারী চাককাটা ঝিরিতে স্থানীয়রা মৃত হাতিটি দেখতে পেয়ে বন বিভাগকে খবর দেন। বন বিভাগের সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন খান, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জাকের হোসেন মজুমদার, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. জুয়েল মজুমদার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রাথমিক সুরুতহাল ও ময়নাতদন্তের জন্য নমুনা সংগ্রহ করেন। মৃত হাতির বয়স আড়াই থেকে তিন বছর হবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা। ১০ দিন আগে ৬ নভেম্বর একই ইউনিয়নের ইয়াংছা এলাকায় আরো একটি মৃত হাতির বাচ্চা পাওয়া গিয়েছিল।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন অধিবাসী জানান, গভীর জঙ্গল থেকে খাবারের সন্ধানে একপাল হাতি সম্প্রতি লোকালয়ে নেমে এসেছে। পালটি প্রতিদিন ওই এলাকার কোনো না কোনো জায়গায় হানা দিয়ে ফসলি জমি, ঘরবাড়ি, মানুষ ও বাগানের ক্ষয়ক্ষতি করছে। এ থেকে রক্ষা পেতে স্থানীয় অনেকে বাগান ও ফসলি জমির চার পাশে প্রায় সময় বিদ্যুতের ফাঁদ পেতে হাতি তাড়ানোর চেষ্টা করেন। ধারণা করা হচ্ছে হাতির পাল খাদ্যের সন্ধানে লোকালয়ে নামলে বাচ্চা হাতিটি পাতানো বিদ্যুতের তারে স্পৃষ্ট হয়ে মারা যায়।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. জুয়েল মজুমদার বলেন, ‘মৃত হাতিটির শুঁড়ে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে। এটির প্রাথমিক সুরতহাল ও নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য সেগুলো চট্টগ্রাম পাঠানো হবে। ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে হাতিটিকে হত্যা করা হয়েছে নাকি, স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে।’

লামা বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এস এম কায়ছার বুনো হাতির মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা