kalerkantho

বুধবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৩ রবিউস সানি     

মেলার প্রথম দিনে ৩৩ কোটি টাকার বেশি কর আদায়

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৫ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মেলার প্রথম দিনে ৩৩ কোটি টাকার বেশি কর আদায়

চট্টগ্রাম নগরের জিইসি কনভেনশন সেন্টারে গতকাল আয়কর মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। ছবি : কালের কণ্ঠ

সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলা বৃহস্পতিবার নগরের জিইসি কনভেনশন সেন্টারে শুরু হয়েছে। সরকারি ছুটির দিন না হলেও প্রথম দিনেই বেশ ভালো সাড়া মিলেছে মেলায়। ঝামেলা এড়াতে অনেকে কর রিটার্ন ও কর জমা দেন। ৪ হাজার ৯৩৩টি রিটার্ন জমা পড়েছে। এর বিপরীতে আয়কর আদায় হয়েছে ৩৩ কোটি ১৮ লাখ ৭৫ হাজার ৭৫৪ টাকা। নতুন ইলেকট্রনিক টিআইএন নিয়েছেন ৪৬১ জন। আর মেলায় এসে কর সেবা নিয়েছেন ২০ হাজার ৮৬৭ জন।

সকালে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘আমাদের মধ্যে কর দেওয়ার অভ্যাস বাড়াতে হবে। কর দিলেই দেশের অর্থনীতি মজবুত হবে।’

বিশেষ অতিথি জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (কাস্টমস পলিসি ও আইসিটি) সৈয়দ গোলাম কিবরীয়া বলেন, ‘মেলার কারণে স্টেক হোল্ডারদের মধ্যে সমপ্রীতির বন্ধন দৃঢ় হচ্ছে।’

কর কমিশনার জি এম আবুল কালাম কায়কোবাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনার মোহাম্মদ এনামুল হক, কর অঞ্চল-১ কমিশনার ইকবাল হোসেন, কর অঞ্চল-৩ কমিশনার মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, কর অঞ্চল-৪ কমিশনার ব্যারিস্টার মুনতাসির বিল্লাহ ফারুকী, সদ্য পদোন্নতি হওয়া কমিশনার মফিজ উল্লাহ, কর আপিল অঞ্চলের কমিশনার হেলাল উদ্দিন সিকদার, কর আপিলাত ট্রাইব্যুনালের সদস্য সৈয়দ মোহাম্মদ আবু দাউদ এবং চট্টগ্রাম কর আইনজীবী সমিতির সভাপতি জামাল উদ্দিন।

মেলার তথ্য ব্যবস্থাপনা উপ-কমিটির আহ্বায়ক ও অতিরিক্ত কর কমিশনার মোহাম্মদ মাহমুদুর রহমান কালের কণ্ঠকে জানান, চট্টগ্রামের কর অঞ্চল-১ এ রিটার্ন জমা দিয়েছেন ১ হাজার ৮৪৭ জন। এর বিপরীতে কর আদায় হয়েছে ১১ কোটি ১৮ লাখ ৫৭ হাজার ৩ টাকা। নতুন ই-টিআইএন নিয়েছেন ১৭৮ জন। কর অঞ্চল-২ এ ৮১০টি রিটার্নের বিপরীতে ৭ কোটি ৬১ লাখ ৩ হাজার ৯৩৭ টাকা, কর অঞ্চল-৩ এ ১ হাজার ২১৯টি রিটার্নের বিপরীতে ৬ কোটি ৭২ লাখ ৯৮ হাজার ৭৯৮ টাকা, কর অঞ্চল-৪ এ ১ হাজার ৩৩টি রিটার্নের বিপরীতে ৭ কোটি ৬৩ লাখ ৯৬ হাজার ৩৯৩ টাকা আয়কর জমা হয়েছে। এ ছাড়া জরিপ রেঞ্জ-৩ এ ২৪টি রিটার্নের বিপরীতে ২ লাখ ১৯ হাজার ৬২৩ টাকা আয়কর জমা হয়েছে।

উল্লেখ্য, নগরের জিইসি কনভেনশন সেন্টারে আয়কর মেলায় নতুন ই-টিআইএন রেজিস্ট্রেশন, রিটার্ন দাখিলসহ সব আয়কর সেবা পাবেন। ২০ নভেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মেলা চলবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা