kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

কুয়েতে মাথায় কাচ পড়ে সীতাকুণ্ডের যুবক নিহত

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পরিবারের ভাগ্য বদলাতে কুয়েত গিয়ে সেখানেই জীবন দিলেন চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের এক যুবক। বৃহস্পতিবার রাতে কর্মরত অবস্থায় মাথায় কাচ পড়ে নিহত হয়েছেন তিনি। তাঁর নাম মো. বেলাল (৩৮)। তিনি উপজেলার ভাটিয়ারী ইউনিয়নের মাদামবিবিরহাট খাদেমপাড়ার মো. আবদুর রহমানের ছেলে। নিহতের পরিবার এ দুর্ঘটনার কথা নিশ্চিত করেছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, সীতাকুণ্ডের মাদামবিবিরহাট খাদেমপাড়ার বাসিন্দা বেলাল পরিবারের আর্থিক সচ্ছলতা ফেরাতে প্রায় ১৫ বছর আগে কুয়েত যান। সেখান থেকে নিয়মিত দেশে বৈদেশিক মুদ্রা পাঠানোর পাশাপাশি নিজেও দেশে আসতেন। বেলালের স্বজনরা জানান, দেশে এসে প্রায় চার বছর আগে বিয়ে করেন বেলাল। তাঁর দুই বছর বয়সী একটি কন্যাসন্তানও রয়েছে। সব শেষ চলতি বছরের মে মাসের দিকে দেশে আসেন বেলাল। স্ত্রী-সন্তান ও পরিবার নিয়ে সুন্দর সময় কাটিয়ে আগস্টে ফিরে যান। কুয়েতে নির্মাণকাজের ঠিকাদারি করতে বেলাল।

বেলালের ভাই মো. হেলাল সাংবাদিকদের জানান, গত বৃহস্পতিবারও বেলাল একটি বিল্ডিংয়ে কিছু থাই গ্লাস লাগানোর কাজ করছিলেন। তাঁর লোকজন ওপরে গ্লাস লাগাচ্ছিলেন আর তিনি কিছুটা নিচে সিঁড়িতে দাঁড়িয়েছিলেন। এ সময় অসতর্কতাবশত একটি কাচ বেলালের মাথায় পড়লে গুরুতর আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

হেলাল আরো বলেন, সব শেষ বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে বেলাল ফোন করে স্ত্রীসহ পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলেন। এর মাত্র তিন ঘণ্টা পর রাত ৮টায় তাঁর সহকর্মীরা ফোন করে দুর্ঘটনায় বেলালের মৃত্যু হয়েছে বলে জানান।

বেলালের প্রতিবেশী মো. আলী বলেন, ‘একটি ছেলে তাঁর জীবনের বেশির ভাগ সময়ই বিদেশে কাটিয়েছে। পরিবারের উন্নতির পাশাপাশি দেশের জন্যও বৈদেশিক মুদ্রা পাঠিয়েছে। এখন আমরা চাই কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই তার মৃতদেহ যেন দেশে আসে। তার স্বজনদের প্রত্যাশা, এ ব্যাপারে সরকার সহযোগিতা করবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা