kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পটিয়ায় মসজিদ উদ্বোধন নিয়ে দুপক্ষ মুখোমুখি

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

২০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পটিয়ার পশ্চিম থানা মহিরায় আবদুল মালেক জামে মসজিদ উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে দুপক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে। রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা থাকায় শুক্রবার জুমার নামাজ আদায় করতে পারেননি মুসল্লিরা।

জানা যায়, মসজিদটি সমপ্রতি ওমানের নাগরিক খালফান আবদুল্লা সেলিম প্রকাশ আল বেলুসি প্রায় ৩৩ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করেন। এতে স্থানীয় সমাজসেবী নজরুল ইসলাম, আবুল কাসেম, মো. আলী, আবুল হোসেন ও শের মিয়াসহ ১৯ ব্যক্তি মসজিদের জন্য জায়গা ওয়াকফ করেন। প্রায় আড়াই বছর ধরে মসজিদের নির্মাণকাজ শেষে বর্তমানে এটি উদ্বোধনের উদ্যোগ নেওয়া হয়। বর্তমানে উদ্বোধন নিয়ে মসজিদ কমিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আকবর আলী মুখোমুখি অবস্থান নেন।

নজরুল ইসলাম অভিযোগ করেন, ‘আমাদের ওয়াকফকৃত জায়গায় মসজিদ উদ্বোধন নিয়ে আমরা কিছুই অবগত নই। আমাদেরকে না জানিয়ে মসজিদ উদ্বোধনের চেষ্টা করা হচ্ছে। এখানে আপাতত পঞ্চেগানা নামাজ চলবে। সৃষ্ট সম্যসা সমাধানের পর জুমার নামাজ উদ্বোধন হবে।’

বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তরে গত ১৫ অক্টোবর উভয়পক্ষের মধ্যে সমঝোতা বৈঠক হয়। এতে তাঁদের দাবিমতো মসজিদ উদ্বোধনে কেউ কোনো আপত্তি না করায় গত শুক্রবার মসজিদ উদ্বোধন করার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু জুমার নামাজের আগে ৩০/৪০ জন নারী মসজিদে প্রবেশে বাধা দেন মুসল্লিদের। বিষয়টি থানায় জানানো হলে এসআই হানিফসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলেও নামাজ পড়ার পরিবেশ না থাকায় এবং দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের আশঙ্কা থাকায় উদ্বোধন করা হয়নি। এতে মসজিদে জুমার নামাজ না হওয়ায় মুসল্লিদের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চার হয় বলে মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আকবর আলী জানান।

জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাবিবুল হাসান বলেন, ‘মসজিদ আল্লাহর ঘর। অন্তত মসজিদ নিয়ে যাতে বিতর্ক না হয় সেদিকে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের সচেতন থাকতে হবে। আমি চেষ্টা করেছি বিরোধ নিষ্পত্তি করতে। আশা করি সমাধান হয়ে যাবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা