kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

অনাবাদি কৃষিজমি চাষাবাদের আওতায় আনার তাগিদ

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অনাবাদি কৃষিজমি চাষাবাদের আওতায় আনার তাগিদ

পটিয়া হাইস্কুল মাঠে তিন দিনব্যাপী ফলদ বৃক্ষমেলা গতকাল শুরু হয়েছে। এ উপলক্ষে শোভাযাত্রা পৌরসভার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। ছবি : কালের কণ্ঠ

উপজেলা কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে পটিয়া হাই স্কুল মাঠে তিন দিনব্যাপী ফলদ বৃক্ষমেলা উদ্বোধন করা হয়েছে। ‘পরিকল্পিত ফল চাষ জোগাবে পুষ্টিসম্মত খাবার’ স্লোগানে মেলা উদ্বোধন করেন হুইপ সামশুল হক চৌধুরী। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাবিবুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন হুইপের কৃষি প্রতিনিধি আজিমুল হক চৌধুরী, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কল্পনা রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, পৌর মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশীদ, রাশেদ মনোয়ার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ডা. তিমির বরণ চৌধুরী ও মাজেদা বেগম শিরু, সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল খালেক, মুহাম্মদ ছৈয়দ, আশীষ কুমার দাশ, খায়ের আহমদ, রুপন চৌধুরী প্রমুখ।

হুইপ বলেন, ‘অনাবাদি কৃষিজমিগুলোকে চাষাবাদের আওতায় আনতে কৃষি বিভাগকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। তাছাড়া বিদেশি ফরমালিনযুক্ত ফলমূল পরিহার করে বিষমুক্ত দেশীয় ফল খেতে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। বাড়ির আঙিনায় সব মানুষ যাতে বৃক্ষরোপণ করে সেজন্য উদ্বুদ্ধকরণমূলক কর্মসূচি গ্রহণ করতে হবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘শেখ হাসিনার সরকার কৃষিবান্ধব সরকার। তাই কৃষি ক্ষেত্রে উন্নয়নের মাধ্যমে দেশের চলমান উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে একযোগে কাজ করতে হবে।’

বঙ্গবন্ধুু ফুটবল উদ্বোধন : উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে গতকাল শনিবার পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুু শেখ মুজিবুর রহমান অনূর্ধ্ব-১৭ গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট।

উদ্বোধন করেন সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী। উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি ও ইউএনও হাবিবুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী। বক্তব্য দেন পৌর মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশীদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাব্বির রহমান সানি, ভাইস চেয়ারম্যান ডা. তিমির বরণ চৌধুরী ও মাজেদা বেগম শিরু, হুইপের একান্ত সচিব হাবিবুল হক চৌধুরী প্রমুখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা