kalerkantho

পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র জব্দ ও চাঁদাবাজি বন্ধের দাবি

রাঙামাটি প্রতিনিধি   

৯ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র জব্দ ও চাঁদাবাজি বন্ধের দাবি

রাঙামাটি শহরে গৎকাল ‘সচেতন পার্বত্যবাসী’র বিক্ষোভ মিছিল বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। ছবি : কালের কণ্ঠ

পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র জব্দ করা এবং চাঁদাবাজি বন্ধের দাবিতে রাঙামাটিতে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ‘সচেতন পার্বত্যবাসী’র ব্যানারে শহরের পৌরচত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এসে অস্থায়ী মঞ্চে সমাবেশ করে। গিরিবার্তা সম্পাদক মো. জামাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ফিরোজা বেগম চিনু। বক্তব্য দেন রাঙামাটি ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আলী আজগর, করাতকল সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক রবিন বিশ্বাস, রাঙামাটি অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল হালিম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, পাহাড়ে দিন দিন অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার বেড়েই চলছে, সঙ্গে চাঁদাবাজিও। ইদানীং আঞ্চলিক সংগঠনগুলো পার্বত্য চট্টগ্রামকে আলাদা করার ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে নতুন করে নিজেদের ‘আদিবাসী’ হিসেবে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দাবি করে আসছে। পাহাড়ে আমরা সবাই বাংলাদেশি হিসেবে বসবাস করতে চাই।

সাবেক সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু বলেন, ‘যারা নিজেদের আদিবাসী মনে করছে তারা সংবিধানবিরোধী। তারা রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল অপরাধ করছে।’

মন্তব্য