kalerkantho

বুধবার । ২৬ জুন ২০১৯। ১২ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

কাপ্তাই হ্রদে ঈদ ঘিরে স্পিডবোট ভাড়ায় নৈরাজ্য

ইউএনওর হস্তক্ষেপে বাড়তি ভাড়া ফেরত পেলেন যাত্রীরা

রাঙামাটি প্রতিনিধি   

১২ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইউএনওর হস্তক্ষেপে বাড়তি ভাড়া ফেরত পেলেন যাত্রীরা

দৈনিক কালের কণ্ঠে সোমবার ‘কাপ্তাই হ্রদে ঈদ ঘিরে স্পিডবোট ভাড়ায় নৈরাজ্য’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের পর বন্ধ হয়েছে বাড়তি ভাড়া নেওয়া। শুধু তাই নয়, ওই দিন বাড়তি নেওয়া ভাড়ার টাকা বোট চালকদের কাছ থেকে ফেরত নিয়ে যাত্রীদের হাতে তুলে দিয়েছেন লংগদু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রবীর কুমার রায়।

লংগদু-রাঙামাটি রুটে চলাচলকারী স্পিডবোটে ঈদ ফেরত যাত্রীদের কাছে থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করেন স্পিডবোট চালকরা। সোমবার সকালে সংবাদটি পত্রিকায় দেখে এবং যাত্রীদের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে এর সত্যতা পান ইউএনও। পরে তাঁর হস্তক্ষেপে বাড়তি নেওয়া টাকা ফেরত পান যাত্রীরা।

লংগদু রাঙামাটি রুটে স্পিডবোটের যাত্রী রুবেল ও সাজ্জাদ বলেন, আমরা ঈদে আত্মীয় বাড়ি বেড়াতে আসছিলাম। আসার পথে নির্ধারিত ৫০০ টাকার বেশি ভাড়া দিয়ে আসতে হয়েছিল। যাওয়ার পথে যাত্রী বেশি বোট কম থাকায় নির্ধারিত ৫০০ টাকার পরিবর্তে ৭০০ টাকা চান বোটচালক। পরে লংগদু ইউএনওর হস্তক্ষেপে আমাদের বাড়তি নেওয়া ২০০ টাকা বোটচালক ফেরত দেন। এতে আমরা খুশি।

লংগদু উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) প্রবীব কুমার রায় বলেন, ‘স্পিডবোটের চালকরা ঈদের আনন্দ শেষে কর্মস্থলে ফেরার পথে যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি ভাড়া নেয়। পরে ওই টাকা ফেরত দেওয়া হয় যাত্রীদের।’

 

 

মন্তব্য