kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

চট্টগ্রাম একাডেমির সুহৃদ সম্মাননা ও মিলনমেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চট্টগ্রাম একাডেমির সুহৃদ সম্মাননা ও মিলনমেলায় বক্তারা বলেন, সাহিত্য-সংস্কৃতির বিকাশে চট্টগ্রামের অবদান অপরিসীম। চট্টগ্রামের রয়েছে সমৃদ্ধ অতীত। সেই ধারাবাহিকতায় আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।

শিল্পকলা একাডেমি গ্যালারি হলে শুক্রবার এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন একাডেমির পরিচালক অধ্যক্ষ ড. আনোয়ারা আলম। এতে লেখক সংগঠক রেজাউল করিম স্বপন ও

মোহাম্মদ মাযহারুল হককে সম্মাননা প্রদান করা হয়। একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা রাশেদ রউফ ও বাচিকশিল্পী আয়েশা হক শিমুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন একাডেমির মহাপরিচালক শিশুসাহিত্যিক অরুণ শীল। প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন রেজাউল করিম স্বপন। এ ছাড়া বক্তব্য দেন কালধারা প্রকাশনা পরিষদের সভাপতি শাহ আলম নিপু, সাবেক মহাপরিচালক জিন্নাহ চৌধুরী, কথাসাহিত্যিক দীপক বড়ুয়া, শিশুসাহিত্যিক বিপুল বড়ুয়া, কবি রহমান হাবীব, লেখক মেহের আফরোজ হাসিনা, অধ্যাপক সুপ্রতিম বড়ুয়া, সঙ্গীতশিল্পী মৃণালিনী চক্রবর্তী ও কবি আবুল কালাম বেলাল।

মিলনমেলায় ছড়া-কবিতা পাঠ, গান আর কথামালায় অংশ নেন লেডিস ক্লাবের সাবেক সভানেত্রী জিনাত আজম, লেখক-গবেষক সাখাওয়াত হোসেন মজনু, গল্পকার বিচিত্রা সেন, শিক্ষাবিদ অজিত কুমার আইচ, কথাসাহিত্যিক নাসের রহমান, গবেষক মর্জিনা আখতার, প্রাবন্ধিক ফেরদৌস আরা রীনু, ছড়াকার গোফরান উদ্দীন টিটু, প্রাবন্ধিক কাঞ্চনা চক্রবর্তী, লেখক কল্যাণ বড়ুয়া, গল্পকার রুনা তাসমিনা, কবি কোহিনুর আক্তার, গল্পকার মিলন বণিক, লেখক মুহাম্মদ মুসা খান, লেখক ফারজানা রহমান শিমু, গল্পকার ইফতেখার মারুফ, কবি লিটন কুমার চৌধুরী, কৌশিক রেন প্রমুখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা