kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

লাশ দাফনের জায়গা নিয়ে হাতাহাতি

কর্ণফুলী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কর্ণফুলীতে বিরোধপূর্ণ জায়গায় লাশ দাফন নিয়ে দুপক্ষে হাতাহাতি হয়েছে। অবশ্য পরে ওই জায়গায় লাশটি দাফন করা হয়। উপজেলার শিকলবাহা ইউনিয়নের কলেজবাজার এলাকায় গতকাল সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

সোমবার সকালে শাহ আলম নামে এক ব্যক্তিকে কবর দেওয়ার জন্য স্বজনেরা বাড়ির পাশে কবর খুঁড়তে শুরু করেন। ওই সময় কর্ণফুলী থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ করেন প্রতিবেশী মাহবুবুর রহমান। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। ওই সময় দুপক্ষে তর্কাতর্কি ও হাতাহাতি হলে পাঁচজন আহত হন।

শাহ আলমের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘আমাদের পারিবারিক জায়গায় কবর খুঁড়তে গেলে মাহবুবুর রহমানের লোকজন হামলা করলে আমাদের কয়েকজন আহত হন।’

তবে মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘আমাদের কেনা জায়গায় কবর খোঁড়া হলে আমরা পুলিশকে জানাই। এতে গণ্ডগোল হয়।’

শিকলবাহা ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মোহাম্মদ ওসমান বলেন, ‘একটা লাশ নিয়ে এ ধরনের ঘটনায় আমরা বিব্রত।’

শিকলবাহা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘ওই জায়গা ছিলো বিরোধপূর্ণ। তাই এ ঘটনা ঘটেছে। তবে লাশ দাফন করা হয়েছে।’

কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর মাহমুদ বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। লাশ দাফন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা