kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৪ অক্টোবর ২০১৯। ৮ কাতির্ক ১৪২৬। ২৪ সফর ১৪৪১       

সম্মাননা জানাল কক্সবাজার জেলা প্রশাসন

মাদকের মামলায় ওকালতি করেন না সিরাজুল

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাদকের মামলায় ওকালতি করেন না সিরাজুল

অনুষ্ঠানে অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন। ছবি : কালের কণ্ঠ

প্রায় চার দশকের আইন পেশায় ইয়াবাসহ মাদকের কোনো মামলায় লড়েননি কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এবং জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল মোস্তফা।

একজন প্রভাবশালী আইনজীবী এবং রাজনৈতিক ব্যক্তি হয়েও ইয়াবা-মাদকের রমরমা সময়ে টাকার লোভ সংবরণ করতে পারায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসন তাঁকে সন্মাননা জানিয়েছে। রবিবার জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে এ উপলক্ষে অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, ‘একজন পেশাজীবী হয়েও ইয়াবার রমরমা বাজার কক্সবাজারে ইয়াবার মামলা পরিচালনা না করার কথাটি ছোট মনে হলেও বাস্তবে তা নয়। বর্তমান সমাজের প্রেক্ষাপটে বিষয়টি অনেক বড়। কেননা ইয়াবার বাজার মানেই কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা।’

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা একজন পেশাজীবী এবং একজন প্রভাবশালী রাজনীতিক হয়েও নীতি-নৈতিকতাকে বিসর্জন দেননি। এজন্য এরকম একজন ব্যক্তিকে তাঁর গুণের জন্য সন্মাননা জানানো দরকার।’

অনুষ্ঠানে জেলা পুলিশ সুপার এ বি এম মাসুদ হোসেন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সারা দেশে চলমান ইয়াবা-মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর অভিযানের সময়টিতে এরকম উদ্যোগ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থার সদস্যদেরকেও উৎসাহিত করবে।’

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন আহমদ সিআইপি, মুক্তিযোদ্ধা

মোহাম্মদ শাহজাহান, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী প্রমুখ।

সন্মাননার জবাবে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা বলেন, ‘আমি পেশাগতভাবে টাকার লোভে যেমন ইয়াবা কারবারিদের পক্ষে আইনগত সহযোগিতা দিইনি তেমনি রাজনৈতিক সুযোগও দিইনি কারবারিদের।’

তিনি বলেন, ‘ইয়াবা কারবারিদের টাকার প্রলোভন এবং চোখ রাঙানিও আমাকে প্রভাবিত করতে পারেনি।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা