kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আদালতের হাজতখানায় আসামির মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চট্টগ্রাম মহানগর আদালতের হাজতখানায় মো. বকুল (২৮) নামে এক আসামির মৃত্যু হয়েছে। ইয়াবা মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে এসে অসুস্থবোধ করায় গতকাল মঙ্গলবার বেলা ৩টায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। বকুল মহানগর হাজতখানার ২ নম্বর কক্ষে ছিলেন। প্রাথমিকভাবে অতিরিক্ত গরমে হিটস্ট্রোকে তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বকুল ঠাকুরগাঁও জেলার পিয়গঞ্জ উপজেলার কাচপুর ইউনিয়নের পালিগাঁও গ্রামের বিপ্লব নেতার বাড়ির মৃত ছৈয়দ আলীর ছেলে। তিনি চট্টগ্রাম নগরের বায়েজিদ থানাধীন শেরশাহ এলাকার নাগরিক সোসাইটি এলাকার ৬ নম্বর সড়কের রাজ্জাক বিল্ডিংয়ের ৪র্থ তলায় পরিবার নিয়ে বাস করতেন।

অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী বলেন, ‘জননিরাপত্তা  ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন একটি মামলায় আসামিকে ধার্য তারিখে আদালতে আনা হয়। আদালতের কাজ শেষ করে তাকে মহানগর হাজতখানায় নেওয়া হয়। দুপুরের দিকে তিনি অসুস্থবোধ করলে পুলিশ তাত্ক্ষণিক তাঁকে মেডিক্যালে পাঠায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।’

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ২৩ জানুয়ারি ১০০টি ইয়াবাসহ বাকলিয়া থানার নাগরিক সোসাইটি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার হন মো. বকুল। ওই মামলায় কিছুদিন জেলে থেকে তিনি জামিনে মুক্তি পান। দুই মাস আগে তিনি আবার গ্রেপ্তার হন। মামলাটি বর্তমানে জননিরাপত্তা ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন রয়েছে। গতকাল এ মামলায় তাঁকে আদালতে হাজির করা হয়। আদালতের নিয়মিত কাজ শেষ করে তাঁকে কারাগারে নেওয়ার জন্য পুনরায় হাজতখানায় নেওয়া হয়। হাজতখানায় আসার পর দুপুর ৩টার দিকে তিনি অসুস্থবোধ করলে দ্রুত তাঁকে চমেক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা