kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

এই সামান্থাকে কে চিনত

২০ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এই সামান্থাকে কে চিনত

এক দশক ধরে দক্ষিণ ভারতের রোমান্টিক ছবির ‘মুখপাত্র’ হয়েই ছিলেন। গেল বছর হঠাৎ সামান্থা রুথ প্রভু হাজির হলেন অ্যাকশন অবতারে। বিবাহবিচ্ছেদ থেকে আইটেম গান—বছরজুড়েই আলোচিত ছিলেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি যশরাজ ফিল্মসের তিন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বলেও খবর।

বিজ্ঞাপন

নতুন সামান্থাকে নিয়ে লিখেছেন
  লতিফুল হক

সর্বনাশটা হয়েছিল গৌতম মেননের ‘ইয়ে মায়া চেসাভে’ দিয়ে। দক্ষিণ ভারতের এই নন্দিত পরিচালকের বহুল প্রশংসিত রোমান্টিক ছবিতে অভিষেক সামান্থার। ২০১০ সালে মুক্তির পর থেকেই ‘রোমান্টিক নায়িকা’র খেতাব পান। সেই থেকে পাশের বাড়ির মেয়ে টাইপ চরিত্র হলেই ডাক পড়ত সামান্থার। সেই ধারবাহিকতায় একে একে করে গেছেন ‘নিথানে এন পনভাসানথাম’, ‘এগা’, ‘ডোকুডু’সহ বেশ কয়েকটি ছবি। সবই ব্যবসাসফল। কিন্তু সামান্থা মনে মনে সন্তুষ্ট হতে পারছিলেন না। সেটা কতটা? গেল ডিসেম্বরে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি পাশের বাড়ির মেয়ে টাইপ চরিত্রে অভিনয় করতে করতে ত্যক্ত-বিরক্ত হয়ে উঠছিলাম। অন্য রকম চরিত্রে অভিনয় করতে, নিজেকে চ্যালেঞ্জ জানাতে তর সইছিল না। ’ সেই আগ্রহ থেকেই সামান্থা করেন ‘সুপার ডিলাক্স’। সমালোচকদের কাছে ব্যাপকভাবে বাহবা পাওয়া ছবিতে তাঁর পারফরম্যান্স দেখেই রাজ ও ডিকে তাঁদের জনপ্রিয় সিরিজ ‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান’-এর দ্বিতীয় সিজনে সামান্থাকে ভাবেন। বাকিটা তো ইতিহাস। গেল বছরের অন্যতম জনপ্রিয় সিরিজে অ্যাকশন অবতারে হাজির হয়ে চমকে দেন সামান্থা। সিরিজে সহ-অভিনেতার সঙ্গে তাঁর একটি ঘনিষ্ঠ দৃশ্যও ছিল। যদিও পরে দৃশ্যটি সম্পাদনা করে বাদ দেওয়া হয়। এই দৃশ্য ও সিরিজ দিয়েই সামান্থার দাম্পত্য ঝামেলারও শুরু, যা পরে বিচ্ছেদে গড়ায়। আগেই জল্পনা ছিল, ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়কে কেন্দ্র করেই নাগা চৈতন্যর সঙ্গে সামান্থার দূরত্ব তৈরি হয়। দিন দশেক আগে এক সাক্ষাৎকারে পরোক্ষভাবে তা স্বীকার করেন নাগা। এই ঘটনার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভক্তদের ব্যাপক সমর্থন পান অভিনেত্রী। সামান্থার সর্বশেষ চমক ‘পুষ্পা—দ্য রাইজ’-এর আইটেম গান। প্রথমবার আইটেম গানে তাঁর আগুনে উপস্থিতিতে মুগ্ধ খোদ বলিউড অভিনেত্রীরাও। গেল বছর আরেক হিট আইটেম গান ‘পরম সুন্দরী’তে পারফরম করা কৃতি শ্যাননও ভূয়সী প্রশংসা করেন। ‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান’-এর সাফল্য, নাগার সঙ্গে বিচ্ছেদের পরই জল্পনা শুরু হয়, বলিউডেই স্থায়ী হচ্ছেন সামান্থা। মুম্বাইয়ে নাকি বাড়িও নিয়েছেন। নতুন খবর, যশরাজের তিন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন সামান্থা। আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করা না হলেও খবর সত্য হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। কারণ এখন প্রযোজকরা এমন নায়ক-নায়িকা চাইছেন, পুরো ভারতেই যাঁদের পরিচিতি আছে। এ ছাড়া রাজ-ডিকের আরেকটি সিরিজে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। ‘নতুন যাত্রা’ প্রসঙ্গে সামান্থা বলেন, ‘আমি এখনকার সময়টা ভীষণ উপভোগ করছি। নানা ধরনের বৈচিত্র্যময় চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পাচ্ছি। অথচ বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ও পরের সময়টা ভীষণ অসহায় মনে হচ্ছিল। মনে হয়নি কঠিন অবস্থা পেরিয়ে স্বাভাবিক হতে পারব। বিচ্ছেদ আমাকে বরং শক্তিশালী করেছে। ’



সাতদিনের সেরা