kalerkantho

বুধবার । ৩১ আষাঢ় ১৪২৭। ১৫ জুলাই ২০২০। ২৩ জিলকদ ১৪৪১

অনুরাগের নতুন

লকাডাউনে স্ট্রিমিং সাইটগুলোর রমরমার মধ্যেই আগামীকাল নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাচ্ছে অনুরাগ কাশ্যপের নতুন ছবি ‘চোকড—প্যায়সা বোলতা হ্যায়’। ছবিটি নিয়ে লিখেছেন মামুনুর রশিদ

৪ জুন, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অনুরাগের নতুন

ভারতে স্ট্রিমিং সার্ভিস জনপ্রিয় হওয়ায় সম্ভবত সবচেয়ে খুশি হয়েছিলেন অনুরাগ কাশ্যপ। তাঁর মতে, ‘স্বাধীনভাবে কাজ করার জন্য নির্মাতাদের বড় সুযোগ এটি।’ অনুরাগ নিজে নেটফ্লিক্সের জন্য ‘সেক্রেড গেমস’ করেছেন। ছিলেন দুটি অ্যান্থলজি ছবির সঙ্গেও [লাস্ট স্টোরিজ ও ঘোস্ট স্টোরিজ]। এবার একই প্ল্যাটফর্মের জন্য করেছেন চলচ্চিত্র ‘চোকড’। ২০১৮ সালে ‘মুক্কাবাজ’ ও ‘মনমর্জিয়া’র দুই বছর পর সিনেমা নিয়ে ফিরছেন তিনি।

‘চোকড—প্যায়সা বোলতা হ্যায়’-এর চিত্রনাট্য তৈরিতে সময় লেগেছে পাঁচ বছর। লিখেছেন নিহিত বেভ। অর্থ, লোভ ও ক্ষমতার গল্প নিয়ে এই সিনেমা। মুম্বাই শহরের প্রেক্ষাপটে সিনেমার মূল দুই চরিত্র এক ব্যাংক ক্যাশিয়ার এবং তাঁর গায়ক স্বামী। এই দম্পতির সাধারণ জীবনে নাটকীয়তা আসে যখন স্ত্রী রান্নাঘরে হঠাৎই লুকিয়ে রাখা বিপুল পরিমাণ অর্থ আবিষ্কার করে! ২০১৬ সালে ভারত সরকার ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাজেয়াপ্ত করে। অনেকেই তখন কালো টাকা ধরা পড়ার ভয়ে লুকিয়ে ফেলে। এই ঘটনা থেকেই অনুপ্রাণিত সিনেমার গল্প, জানান কাশ্যপ। ছবিতে ব্যাংক ক্যাশিয়ার চরিত্র করেছেন সায়ামি খের, তাঁর স্বামীর চরিত্রে আছেন মালয়ালাম অভিনেতা রোশান ম্যাথিউ। হিন্দিতে রোশানের অভিষেক সিনেমা এটি। রোশানের আগের সিনেমা ‘মুথুন’-এর সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন অনুরাগ। ছিলেন সেটির সহচিত্রনাট্যকার ও সহপ্রযোজক। রোশান জানান, সেই সিনেমায় তাঁর অভিনয় অনুরাগের ভীষণ পছন্দ হয়। তখনই তাঁকে পরের সিনেমায় নেওয়ার কথা দিয়েছিলেন। অনেক দক্ষিণী অভিনেতার হিন্দি সিনেমা করার বড় বাধা ভাষা। তবে আগে মুম্বাইতে থাকার কারণে হিন্দিটা আয়ত্তেই ছিল এই মালায়লি অভিনেতার। অন্যদিকে সায়ামির অভিষেক হয়েছিল ২০১৬ সালে, ‘মির্জা’ দিয়ে। এরপর নীরজ পাণ্ডের ‘স্পেশাল ওপস’ করেছেন। ‘চোকড’ নিয়ে তিনি বলেন, ‘সারিতা চরিত্রটির সঙ্গে সাধারণ ভারতীয় গৃহবধূরা সহজেই নিজেদের একাত্ম করতে পারবে। একেবারেই গ্ল্যামারহীন চরিত্রটি করা আমার জন্য বড় চ্যালেঞ্জ ছিল।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা