kalerkantho

রবিবার । ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩১  মে ২০২০। ৭ শাওয়াল ১৪৪১

করোনার প্রভাবে প্রেক্ষাগৃহে ছবি মুক্তি বন্ধ, কিন্তু খোলা আছে ওয়েব। এবারের সংখ্যা তাই তৈরি হয়েছে বিভিন্ন স্ট্রিমিং সাইটের চলচ্চিত্র ও ওয়েব সিরিজ নিয়ে

ছোট পর্দায় স্টার ওয়ারস

গেল সপ্তাহে ভারতীয় উপমহাদেশে যাত্রা শুরু করেছে ওয়েব প্ল্যাটফর্ম ডিজনি প্লাস। শুরুতেই যেসব সিরিজ দেখা যাচ্ছে, তার মধ্যে অন্যতম ‘দ্য ম্যান্দালোরিয়ান’। স্টার ওয়ারস ফ্র্যাঞ্চাইজির এই সিরিজটি নিয়ে লিখেছেন হাসনাইন মাহমুদ

৯ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছোট পর্দায় স্টার ওয়ারস

‘দ্য ম্যান্দালোরিয়ান’-এর গল্প এক বাউন্টি হান্টারকে ঘিরে। প্রেক্ষাপট ‘স্টার ওয়ারস এপিসোড সিক্স—রিটার্ন অব দ্য জেদাই’ এবং ‘স্টার ওয়ারস এপিসোড সেভেন—দ্য ফোর্স অ্যাওয়াকেন্স’-এর মধ্যবর্তী সময়কাল। ম্যান্দো নামে পরিচিত বাউন্টি হান্টারটি সুপরিচিত জ্যাঙ্গো ফেট আর বোবা ফেটদের জাতি থেকেই এসেছিল। এম্পায়ারের এক ভগ্নাংশের কাছ থেকে কিছু কাজ পেয়ে সে জড়িয়ে পড়ে নতুন এক অ্যাডভেঞ্চারে, উন্মোচিত হয় ‘স্টার ওয়ারস’-এর নানা অজানা দিক।

সিরিজটিতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন পেদ্রো প্যাস্কাল। এ ছাড়া আরো আছেন কার্ল উইদারস, ওয়ার্নার হারজগ, জিনা কারানো, জুলিয়া জোন্স। কণ্ঠ দিয়েছেন তাইকা ওয়াতিতি, নিক নল্টের মতো তারকারা। পরিচালক হিসেবে রয়েছেন   জন ফাভ্রু।

এ জন্য কোনো সমস্যা হয়নি। জন এমনভাবে বুঝিয়ে দিয়েছে, পুরো দৃশ্যটাই যেন চোখের  সামনে দেখেছি।

‘দ্য ম্যান্দালোরিয়ান’ সিরিজ তৈরির গুজব অনেক দিন ধরেই বাতাসে ভাসছিল। ডিজনি লুকাস ফিল্মস অধিগ্রহণ করার পর গুঞ্জন বাস্তব রূপ নেওয়ার ভিত্তি তৈরি হয়। তবে বেশ কয়েকটি ‘স্টার ওয়ারস’ চলচ্চিত্র মুক্তি পেলেও ছোট পর্দার দর্শকদের অপেক্ষার যেন শেষ হচ্ছিল না। শেষ পর্যন্ত ডিজনি প্লাস স্ট্রিমিং সার্ভিস শুরুর ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই আসে ‘দ্য ম্যান্দালোরিয়ান’-এর সুখবরও। নতুন সার্ভিসটি শুরুও হয়েছে এই সিরিজটির মাধ্যমে। বছর শেষে ‘দ্য ম্যান্দালোরিয়ান’ ২০১৯ সালের অন্যতম জনপ্রিয় সিরিজের স্বীকৃতি পায়।

সিরিজটির অন্যতম আকর্ষণ চলচ্চিত্রকার ওয়ার্নার হারজগের উপস্থিতি। তবে এ সিরিজে অভিনয় করলেও পরিচালক আগে কোনো ‘স্টার ওয়ারস’ চলচ্চিত্রই দেখেননি! এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এ জন্য কোনো সমস্যা হয়নি। জন এমনভাবে বুঝিয়ে দিয়েছে, পুরো দৃশ্যটাই যেন চোখের সামনে দেখেছি।’

সিরিজটি মুক্তির পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছিল শুধু বেবি ইওডার ছবি। জেদাই মাস্টার ইওডার জাতির এই শিশুটি পরিণত হয়েছিল সবচেয়ে বিক্রীত খেলনায়। তখন থেকেই পরের সিজন নিয়ে ভক্তদের আগ্রহ। করোনার জন্য মুক্তির দিন-তারিখ নিয়ে সন্দেহ দেখা গেলেও নিশ্চিতভাবেই আসছে সিরিজটির দ্বিতীয় সিজন। তবে এবার পরিচালক বদলেছে। এবারের কিস্তি করবেন

‘স্টার ওয়ারস এপিসোড এইট—দ্য লাস্ট জেদাই’-এর রিয়ান জনসন। শোনা যাচ্ছে, জেমি লি কার্টিস যোগ দিচ্ছেন পরবর্তী কিস্তিতে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা