kalerkantho

রবিবার । ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩১  মে ২০২০। ৭ শাওয়াল ১৪৪১

লিপস্টিকে আঁকা

৯ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



লিপস্টিকে আঁকা

স্বেচ্ছাবন্দিত্বের এই সময়ে রূপচর্চার সামগ্রী দিয়ে ছবি আঁকছেন অভিনয়শিল্পী আশনা হাবিব ভাবনা। প্রায় প্রতিদিনই সেগুলো শেয়ার করছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। নির্বাচিত কিছু ছবির গল্প শুনেছেন আতিফ আতাউর


নির্যাতিত নারীর এই ছবি এঁকেছেন ফাউন্ডেশন, আইব্রো পেন ও কালার পেনসিল দিয়ে।

ভাবনার ভাষ্য : অনিমেষ ছবিটার নাম দিয়েছে ‘নারী সর্বংসহা’। ধর্ষিত, নির্যাতিত নারীদের কথা মাথায় রেখে ছবিটা এঁকেছি। এটা আমার এক ধরনের প্রতিবাদও।


গাছের এই ছবি এঁকেছেন লিপস্টিক, আই শ্যাডো ও নেইলপলিশ দিয়ে।

ভাবনার ভাষ্য : আমার কাছে ছবি আঁকার জিনিসপত্র নেই। যা আছে সেটা মেকআপ টুলস। সেগুলো দিয়েই গাছটি এঁকেছি। আমরা ভাবি, সৃষ্টিকর্তা বোধহয় শুধুই আমাদের, গাছও কিন্তু স্রষ্টার সৃষ্টি। তারা যে শ্বাস নেয়, এটা অনেকেই ভুলে থাকেন। আজ আমরা ঘরে, তারা এখন নির্ভয়ে প্রাণভরে নিঃশ্বাস নিচ্ছে।


কৃষ্ণের এই ছবি এঁকেছেন কাজল, আইশ্যাডো, মাশকারা ও লিপস্টিক দিয়ে।

ভাবনার ভাষ্য : কৃষ্ণ বাঁশি বাজাচ্ছে এই ভাবনা মাথায় নিয়ে ছবিটা আঁকা। সুরকার ইমন সাহা এরই মধ্যে ছবিটা বুক করেছে, বলেছে সে তার স্টুডিওতে বাঁধিয়ে রাখবে। ফেসবুকেও ভালো সাড়া পেয়েছি। এমনকি ভারতীয় হাইকমিশন থেকে ফোন দিয়ে বলেছে ছবিগুলো নিয়ে প্রদর্শনী করতে।


আইব্রো পেনসিলে আঁকা দেবী।

ভাবনার ভাষ্য : ছবিটির নাম দিয়েছি ‘আমার সাদাকালো দেবী’। দেবীর প্রতি ভালো লাগা থেকে আঁকা ছবিটা। সবার শেষে কপালে ছোট্ট একটা টিপ বসিয়ে দিয়েছি।


লিপস্টিক, আইব্রো ও পেনসিলে আঁকা হিজাব পরা নারী।

ভাবনার ভাষ্য : ফেসবুকে অনেকেই আমার আঁকা ছবিতে মন্তব্য করেন, মুসলিম হয়ে আমি কেন নাচের ছবি, দেবীর ছবি, বুদ্ধের ছবি আঁকি? আঁকাআঁকির ক্ষেত্রে কোনো বাধাধরা নিয়ম আছে বলে আমার মনে হয় না। হয়তো এত উল্টাপাল্টা মন্তব্য পাওয়ার পর নিজের অজান্তেই হিজাব পরা এমন একটা মেয়ের ছবি এঁকেছি। এটা আমার তরফ থেকে প্রতিবাদও হতে পারে।


ছবিটি এঁকেছেন ফাউন্ডেশন, আই শ্যাডো, আই লাইনার ও রং পেন্সিল দিয়ে।

ভাবনার ভাষ্য : ছবিটার নাম দিয়েছি ‘আমার ঘরানার সুফি’। সুফিদের টুপি সাধারণত সাদা হয়। কিন্তু আমার ছবির টুপি রঙিন, চোখ রঙিন। সুফি মতবাদে বিশ্বাসীদের আমি এভাবেই দেখি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা