kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ জানুয়ারি ২০২০। ৭ মাঘ ১৪২৬। ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

রোমান্টিক থেকে অ্যাকশনে

গেল দশকে রানী মুখার্জি মানেই ছিল রোমান্টিক ছবি। সেখান থেকে বেরিয়ে এসে এই দশকে তিনিই কি না অ্যাকশন হিরোইন! ‘মর্দানি’র পর ‘মর্দানি ২’তেও খোলনলচে বদলে ফেলা রানীকে দেখা যাবে। অভিনেত্রীকে নিয়ে লিখেছেন মামুনুর রশিদ

১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রোমান্টিক থেকে অ্যাকশনে

রোমান্টিক চরিত্রে অনবদ্য অভিনয় আর মন মাতানো হাসি দিয়ে গেল দশকে বলিউড মাত করেছেন রানী মুখার্জি। সাতটা ফিল্মফেয়ার পুরস্কারই যার প্রমাণ। ‘হাম তুম’, ‘বীর জারা’, ‘যুবা’, ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-এর মতো সিনেমাগুলো তাঁর সঙ্গে ‘রোমান্টিক নায়িকা’র তকমা লাগিয়ে দেয়। তবে বিরতির পর ২০১৩ সালে পর্দায় এসে একেবার চমকে দেন রানী। ‘মর্দানি’ ছবিতে রুক্ষ, কঠিন এক পুলিশ অফিসার হিসেবে তাঁকে দেখে অবাক বনে যায় দর্শক। যাকে বরাবরই কোমল স্বভাবের চরিত্রে দেখা গেছে, সেই রানীই কি না অ্যাকশন হিরোইন! সবচেয়ে বড় কথা, অ্যাকশন দৃশ্যগুলোতে কোনো জড়তাই ছিল না। ‘ওই সিনেমার প্রস্তাব পাওয়ার পর আমি খুবই খুশি হয়েছিলাম। একজন অভিনেত্রীর জন্য নিজেকে ভাঙতে পারা, নিজেকে চ্যালেঞ্জ জানানো সবচেয়ে বড় আনন্দের,’ বলেন রানী।

প্রায় পাঁচ বছর পরে আসছে ছবির সিক্যুয়াল ‘মর্দানি ২’। ফের ইন্সপেক্টর শিবানি শিবাজী রায় চরিত্রে ফিরছেন রানী। এবার তাঁর চ্যালেঞ্জ ২১ বছর বয়সী এক সিরিয়াল কিলারকে খুঁজে বের করার। যে একের পর এক কলেজ পড়ুয়া তরুণীদের ধর্ষণের পর খুন করছে।

সিরিয়াল কিলারকে ধরার পাশাপাশি পুলিশদের বীরত্ব ও সাহসিকতাকে ফুটিয়ে তুলেছে এই সিনেমা। তবে ছবিটি নিয়ে বিতর্কও শুরু হয়েছে। কারণ সিনেমার শুটিং হয়েছে ভারতের কোটা শহরে। এই শহরের তরুণীদের ধর্ষণ ও হত্যা করা হচ্ছে—ট্রেলারে এমন দৃশ্য দেখার পর খেপেছে শহরবাসী। তারা সিনেমা থেকে কোটা শহরের নাম তুলে দেওয়ার দাবি করেছে। তবে সিনেমার পরিচালক গুপি পুত্ররান বলছেন, অনেক সত্য ঘটনা থেকেই অনুপ্রাণিত ছবির গল্প, কোটার কথা বলা হলেও ভারতের অনেক শহরই নারীদের জন্য নিরাপদ নয়। নির্মাতাদের কাজ আরো সহজ করে দিয়েছে গেল সপ্তাহে তেলেঙ্গানায় তরুণী চিকিত্সকের ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা। যা নাড়িয়ে দিয়েছে পুরো ভারতকে। মনে করা হচ্ছে, এই ঘটনা ‘মর্দানি ২’ সিনেমার জন্য আখেরে লাভই হয়েছে।

তবে বিতর্ক এখানেই শেষ নয়। অনেকেই গত বছরের অন্যতম প্রশংসিত তামিল সিনেমা ‘রাতচাসান’-এর সঙ্গে ‘মর্দানি ২’-এর মিল খুঁজে পেয়েছেন। ‘রাতচাসান’ এক পুলিশ ইন্সপেক্টরের সিরিয়াল কিলার ধরার গল্প নিয়ে। তবে এ বিষয়ে রানী জানান, তিনি তামিল সিনেমাটি দেখেননি। তাই এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না। যদি মিলে যায় সেটা কাকতালীয় ছাড়া কিছু নয়। সিনেমা দেখেই সবাইকে সমালোচনার আহ্বান জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা