kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ফেইসবুক থেকে

১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফেইসবুক থেকে

দ্য বোট

দ্য বোট [২০১৮ ]

 

►   দক্ষিণ ইউরোপের দ্বীপরাষ্ট্র মাল্টা; সেখানকার একটি স্বল্প বসতিপূর্ণ উপকূল থেকে স্পিডবোটে বেরিয়ে পড়ে এক যুবক। সমুদ্রে কিছুদূর যেতেই এক ঘন কুয়াশার চাদরে গতি কমিয়ে এনে ধীরে ধীরে এগোতে থাকে। হঠাৎ কুয়াশার আড়ালের মধ্য থেকে একটি ছিমছাম, সুন্দর সেইলবোট চোখে পড়ে। কিন্তু কোনো মানুষজনের চিহ্ন নেই! কিছুক্ষণ ডেকেও কারো সাড়া না পেয়ে কৌতূহলবশত সেইলবোটেই উঠে পড়ে যুবক। 

অনুসন্ধিত্সু মন নিয়ে বোটের ভেতরের কেবিনে সন্তর্পণে পা বাড়ালেও কারোই দেখা মেলে না। তবে কেবিনের ভেতরের সমস্ত আলামত স্পষ্টই বলে দিচ্ছে কে বা কারা ছিল এই বোটে, কোন কারণে যেন আস্ত বোটটাকে শুধু রেখে কেটে পড়েছে! ভেতরটা ভালো করে দেখে নিয়ে ওপরের ডেকে ফিরে আসতেই এবার বড়সড় একটা ধাক্কা—খানিক আগেই তুলে রাখা ওর নিজের বোটটাও উধাও! নিরুপায় যুবকের জন্য এখন এই পরিত্যক্ত সেইলবোটই শেষ ভরসা। কিন্তু বোট চালাতে গিয়ে কিছুক্ষণের মধ্যেই টের পেল বোটটা বেশ আধুনিক হলেও ইঞ্জিনটা কোনো কারণে বিকল হয়ে আছে...কাজ করছে নেভিগেশন, না সাড়া পাওয়া যাচ্ছে রেডিওতে।

সুনসান মাঝ দরিয়ায় অচেনা সেই রহস্যময় সেইলবোটে যুবকের বাঁচামরার লড়াইটা নিদারুণভাবে জমে উঠল, বিশেষ করে যখন প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গিয়ে বোটের টয়লেটেই আটকা পড়তে হলো ওকে! কিন্তু আদৌ কি টয়লেটের দরজাটা আপনাআপনিই বন্ধ হয়েছিল? নাকি এর পেছনে হাত ছিল কারো নিষ্ঠুর রসিকতার?

সূর্য ডুবে যেতেই পড়তে হলো ভয়ংকর ঝড়ের কবলে। নিজের সমস্ত জ্ঞান, বুদ্ধি আর অভিজ্ঞতা এক করে এদিকে যুবকও শুরু করে দিল টিকে থাকার এক হার-না-মানা সংগ্রাম।

কিন্তু একটা প্রশ্ন প্রায়ই ঘুরপাক খাচ্ছে মনে—বোটটা কি আদৌ পরিত্যক্ত? মানুষ বলতে ও ছাড়া আর কেউ লুকিয়ে নেই তো?...যে বা যারা ওকে নিয়ে মেতে উঠেছে কোনো ভয়ংকর খেয়ালিপনায়?

স্রেফ একটি নাম-পরিচয়হীন ক্যারেক্টারকে নিয়ে সামান্য কিছু ডায়ালগে সাজানো এই মুভিতে সারভাইভাল থ্রিলারের অভিজ্ঞতার পাশাপাশি শেষে গিয়ে পাবেন একটি চমক। সারভাইভাল থ্রিলার বা হরর মুভির ভক্ত হয়ে থাকলে দেখে নিতে পারেন।

সানজিদ পারভেজ

সিনেমাখোর গ্রুপের পোস্ট

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা