kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

শেষের যুদ্ধ

৮ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শেষের যুদ্ধ

গেল বছর মুক্তি পেয়েই সাড়া ফেলেছিল নেটফ্লিক্সের ওয়েব সিরিজ ‘সেক্রেড গেমস’। দ্বিতীয় তথা শেষ সিজনের জন্য তাই ভক্তদের অপেক্ষা ফুরাতেই চায় না। ১৫ আগস্ট থেকে প্রচারিত হবে দ্বিতীয় সিজন। আলোচিত সিরিজটি নিয়ে লিখেছেন মামুনুর রশিদ

 

ভারতে ওয়েব সিরিজ দুনিয়ার দুয়ার খুলে দিয়েছিল ‘সেক্রেড গেমস’। নেটফ্লিক্সে সিরিজটির ব্যাপক জনপ্রিয়তা দেখে গেল বছর ভারতে মুক্তি পেয়েছে ৫০টিরও বেশি ওয়েব সিরিজ! যদিও জনপ্রিয়তায় কোনোটিই ‘সেক্রেড গেমস’-এর ধারেকাছেও আসতে পারেনি। মুক্তির পর এত জনপ্রিয়তা পেলেও পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপ ও বিক্রমাদিত্য মোটওয়ানি কল্পনাও করেননি সিরিজটি এত মানুষ পছন্দ করবে। ‘এটা আমাদের সবচেয়ে জনপ্রিয় কাজ। আমি যে ধরনের কাজ করি, তাতে এত সাড়া কখনোই পাইনি,’ এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন অনুরাগ।

‘সেক্রেড গেমস’-এর তুমুল জনপ্রিয়তার অন্যতম কারণ সিরিজের টান টান চিত্রনাট্য। আর অবশ্যই কেন্দ্রীয় চরিত্র গণেশ গাইতোণ্ডে। ২৫ দিন পর গোটা ভারত ধ্বংস হয়ে যাবে—গেল সিজনে রেখে যাওয়া এই টুইস্টের পর থেকেই ভক্তদের কৌতূহলের শেষ নেই। প্রথম সিজন গ্যাংস্টার গণেশ গাইতোণ্ডের অপরাধসাম্রাজ্য নিয়ে। দ্বিতীয় সিজন মূলত গাইতোণ্ডের গ্যাংস্টার হয়ে উঠার প্রেক্ষাপট তুলে ধরবে। একই সঙ্গে থাকবে পুলিশ ইন্সপেক্টর সরতাজ সিংয়ের শুরুর গল্পও, যিনি গাইতোণ্ডেকে সেটা খুঁজে বের করার তদন্তে নেমেছেন। প্রথম সিজনে গাইতোণ্ডের গল্পাংশ পরিচালনা করেছিলেন অনুরাগ আর সরতাজ সিংয়ের বিক্রমাদিত্য মোটওয়ানি। কিন্তু এবার অনুরাগ ঠিক থাকলেও বিক্রমাদিত্যর জায়গা নিয়েছেন ‘মাসান’ খ্যাত নীরজ ঘেওন। সরতাজ সিং চরিত্রটিতে আবারও দেখা যাবে সাইফ আলী খানকে। বেশ কয়েক বছর ধরেই সিনেমায় বাজে একটা সময় পার করছেন বলিউডের এই খান। সর্বশেষ কবে বক্স অফিসে হিট দিয়েছেন সেটিও ভুলতে বসেছিলেন। এমন একটা সময়ে ‘সেক্রেড গেমস’ পুরো ক্যারিয়ারকেই যেন নতুন মাত্রা দিয়েছে। সরতাজ চরিত্রে তাঁর অভিনয় শুধু সাধারণ দর্শকদের মধ্যেই নয়, প্রশংসা পেয়েছে বলিউড তারকাদের থেকেও। আমির খান স্বয়ং সাইফের অভিনয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। এমনকি কৌতূহল দমাতে না পেরে দ্বিতীয় সিজনের শেষ নিয়েও জানতে চেয়েছিলেন। তবে স্বভাবতই সাইফ মুখ বন্ধ রেখেছেন।

তবে এই সিরিজকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন গণেশ গাইতোণ্ডে ওরফে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী। শুধু ভারত নয়, তাঁর জনপ্রিয়তা পৌঁছে গেছে সারা দুনিয়ায়। দ্বিতীয় সিজনের বড় একটা অংশের শুটিং হয় কেনিয়ায়। সেখানে একটি বাংলো ‘সেক্রেড গেমস’ টিম ব্যবহার করতে পেরেছিল বাংলোর মালিক সিরিজটির ভক্ত বলেই। না হলে কখনোই তিনি শুটিংয়ের জন্য নিজের বাংলো ভাড়া দেন না। গেলবার গালাগাল, রাজনৈতিক বক্তব্যসহ নানা কারণে সমালোচিত হয়েছিল সিরিজটি। এ জন্য পরের সিজনে সেন্সর বোর্ডের সনদ নিতে চাপ দেওয়া হয়, যা নিয়ে ভীষণ বিরক্ত নওয়াজ, ‘এটা একেবারেই স্বৈরাচারী সিদ্ধান্ত।’

দ্বিতীয় সিজনে দেখা যাবে নতুন অনেক চরিত্রই। এর মধ্যে আগ্রহের কেন্দ্রে আছেন পংকজ ত্রিপাঠী। হালে আলোচিত এই অভিনেতা এবার গুরুজি চরিত্র করেছেন। আশির দশকে ভারতের জনপ্রিয় ধর্মগুরু রাজনীশ অশোর আঁধারে তৈরি এই চরিত্রটি। এ ছাড়া এই সিজনে যুক্ত হয়েছেন কালকি কোয়েলচিন, রণবির শোরে, শোভিতা ধুলিপালা প্রমুখ।

আগেই আন্দাজ করা গিয়েছিল, দ্বিতীয় সিজনেই শেষ হয়ে যাবে আলোচিত এই সিরিজটি। প্রচারের কয়েক দিন আগে সাইফ আলী খানও নিশ্চিত করেছেন সেটা।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা