kalerkantho

চলছে স্বরলিপি

শিখেছেন এবং শেখাচ্ছেন নজরুল। নজরুলের অ্যালবাম দিয়েই ক্যারিয়ার শুরু। তবে এখন আধুনিক গানেই ব্যস্ত তানজিনা করিম স্বরলিপি। লিখেছেন রবিউল ইসলাম জীবন। ছবি তুলেছেন সাইফুল রাজু

১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



চলছে স্বরলিপি

প্লেব্যাক

২৮ জুলাই ইউটিউবে প্রকাশ পেয়েছে ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবিতে ইমরানের সঙ্গে স্বরলিপির গাওয়া ‘কত ভালোবাসি তোরে’। শাকিব খান-বুবলী অভিনীত গানটি প্রথম দিনেই তিন লাখ ভিউয়ার পেয়েছে, যা নিয়ে বেশ আনন্দিত গায়িকা, ‘ইউটিউবে এক দিনে এত মানুষের কাছে আগে আমার কোনো গান ছড়ায়নি। এই গানটির প্রতি সবার রেসপন্স দেখে খুব ভালো লাগছে।’ গানটির কথা ও সুর করেছেন শফিক তুহিন। একই গীতিকার-সুরকারের কল্যাণে ছবির আরেকটি গান ‘সাগরের বুকে যত জল’ও গেয়েছেন স্বরলিপি। চলচ্চিত্রে তাঁর গাওয়া আরো কিছু গান প্রকাশের অপেক্ষায়। মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘আনন্দ অশ্রু’তে জে কের রিমেকে গেয়েছেন ‘ভ্রমর কইও গিয়া’। ‘আমি মন্ত্রী হবো’ ছবিতে একটি গেয়েছেন মনির খানের সঙ্গে, আরেকটির সহশিল্পী প্রশান্ত। চিরকুট ব্যান্ডের সুর-সংগীতে দুটি গান গেয়েছেন নাম চূড়ান্ত না হওয়া একটি ছবিতে। ‘তুই আমার জান’ ছবিতে গেয়েছেন প্রতীক হাসানের সঙ্গে। ‘নন্দিনী’তে গেয়েছেন কাজী শুভর সুরে। ‘সব শিল্পীরই স্বপ্ন থাকে চলচ্চিত্রে গাওয়ার। আমি এ পর্যন্ত চলচ্চিত্রে প্রায় ৪০টি গান করেছি। প্রতিটি গানই গল্পের গভীরে গিয়ে গাওয়ার চেষ্টা করি। এর ফলটাও পাচ্ছি’—বলছিলেন স্বরলিপি। প্লেব্যাকে তাঁর অভিষেক ২০১৩ সালে ‘প্রেম প্রেম পাগলামি’তে।

 

নতুন অ্যালবাম

ঈদে জি-সিরিজের ব্যানারে আসার কথা স্বরলিপির তৃতীয় অ্যালবাম ‘কান্না মেঘের ফুল’। এতে সেমিক্লাসিক্যাল ছয়টি গান থাকছে। সব গানেরই সুর করেছেন রুবাইয়েত শামীম চৌধুরী। গানগুলো হলো—‘একটি শব্দ বলতে গিয়ে’, ‘যতটা সময় তুমি’, ‘কান্না মেঘের ফুল’, ‘পাহাড়ী উদাস ওই’, ‘আমি নির্জন কোনো দুপুরের মতো একা’ ও ‘আজকে যেনো মন তোমাকে ডাক দিয়েছে’। এ ছাড়া আসবে ‘তুমিময়’ ও ‘ভাবনার বাতায়নে’ শিরোনামের দুটি সিঙ্গল। বলেন, ‘আমি তুলনামূলক মেলোডি গান গাইতেই বেশি পছন্দ করি। এ ধরনের গানে আয়োজকরা আমাকে বেশি ডাকেন। তবে যেকোনো ভালো গান গাওয়ার জন্যই আমি প্রস্তুত।’ সিডি চয়েস থেকে তাঁর দ্বিতীয় অ্যালবাম ‘নিমন্ত্রণ’ এসেছিল পাঁচ বছর হয়ে গেছে। ফলে নতুন অ্যালবাম নিয়ে আগ্রহটা একটু বেশিই। একক অ্যালবাম, মিক্সড ও সিঙ্গল মিলিয়ে এ পর্যন্ত প্রায় ২০০টি গান করেছেন বলেও জানালেন।

 

নজরুল থেকে আধুনিক

আধুনিক গান দিয়ে পরিচিতি পেলেও স্বরলিপির ক্যারিয়ার শুরু নজরুলের গান দিয়ে। ২০১২ সালে প্রকাশিত তাঁর প্রথম একক ‘কে দুরন্ত বাজাও’ নজরুলের গান দিয়েই সাজানো। এখন পর্যন্ত নজরুল একাডেমি থেকে প্রকাশিত একমাত্র অ্যালবাম এটি! স্বরলিপির প্রতি নজরুল একাডেমির ভালোবাসা থেকেই সেটা সম্ভব হয়েছে। ১৪ বছর ধরে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে তিনি। ২০০৬ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত ছিলেন শিক্ষার্থী। ছয় বছরের সার্টিফিকেট কোর্সে নজরুলের পাশাপাশি শিখেছেন উচ্চাঙ্গসংগীত। এর পর থেকে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক তিনি। একই বছর থেকে শেখাচ্ছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি সংগীত শিক্ষা কেন্দ্রে [বাসাবো]। মাস্টারমাইন্ড স্কুল ধানমণ্ডি শাখার সংগীত শিক্ষকও তিনি। স্বরলিপি বলেন, ‘নজরুলের গান ভালোমতো শেখা গেলে যেকোনো গান করাই সহজ হয়ে যায়। নজরুল ভালোভাবে শিখেছি বলেই আধুনিক গানে সেটা প্রয়োগ করতে পারছি।’ নজরুলের আসছে মৃত্যুবার্ষিকীতে প্রকাশ পাবে স্বরলিপির গাওয়া ‘হারানো হিয়ার নিকুঞ্জ পথে’ ও ‘আমি যার নূপুরের ছন্দ’।

 

শিকড়েই গান

‘আমার জন্মই সংগীত পরিবারে। আমার বাবা করিম শাহাবুদ্দিন একজন সংগীতশিল্পী, সুরকার ও শিক্ষক। তাঁর কাছেই হাতেখড়ি’—বলছিলেন স্বরলিপি। তাঁর বাবার গানের গুরুদের একজন ভারতের ওস্তাদ মাশকুর আলী খান। ২০০২ সাল থেকে ঢাকায় বেঙ্গল ফাউন্ডেশনে তাঁর কাছেও শেখা শুরু করেন স্বরলিপি। এখনো বাপ-বেটি একসঙ্গে কলকাতায় যান তাঁর কাছে শিখতে। ২০১২-১৩ সালে জি বাংলার ‘সারেগামাপা’য় অংশ নিয়ে শীর্ষ ১৬-তে জায়গা করে নেন মেহেরপুরের এই মেয়ে। প্রতিযোগিতার এবারের সিজনে ঢাকা-কলকাতার আরো চার বিচারকের সঙ্গে মাঈনুল আহসান নোবেলের অডিশন নেন তিনি। চলতি বছরের ১৪ এপ্রিল স্বরলিপি ভালোবেসে বিয়ে করেন এস আই শহীদকে। তিনিও গানের মানুষ—গীতিকার।

মন্তব্য