kalerkantho

সোমবার । ২৬ আগস্ট ২০১৯। ১১ ভাদ্র ১৪২৬। ২৪ জিলহজ ১৪৪০

ফেইসবুক থেকে

১১ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফেইসবুক থেকে

দ্য মার্ভেলাস মিসেস মেইজেল

দ্য মারভেলাস মিসেস মেইজেল [২০১৭-]

 

পিরিয়ড কমেডি ড্রামা

অ্যামাজন প্রাইম

►    যখন ‘মারভেলাস মিসেস মেইজেল’ নিয়ে আগের গ্রুপে ঝড় বয়ে যাচ্ছিল তখনো দেখিনি, একে তো কমেডি কম দেখা হয়, তারপর নেটফ্লিক্সে না থাকাও একটা কারণ ছিল। অবশেষে টানা দুই সিজন দেখলাম, অনেক দিন পর কোনো শো দেখে এত হাসলাম।

মিসেস মেইজেল চরিত্রে অভিনয় করেছেন রেচেল ব্রসনাহান। ঘটনা ১৯৫৮ সালের নিউ ইয়র্কে। মিরিয়াম মিজ মেইজেল এক সাধারণ জিউইশ গৃহবধূ, যার হাজব্যান্ড, ফুটফুটে এক ছেলে এক মেয়ে, সচ্ছল মা-বাবা, প্রতিষ্ঠিত ভাই আর ঝকঝকে আপার ওয়েস্ট সাইড ম্যানহাটান অ্যাপার্টমেন্ট নিয়ে ছবির মতো সাজানো জীবন। সেই জীবনে হঠাৎ করে সব এলোমেলো হয়ে যায় যখন মিস্টার মেইজেল মিজকে ছেড়ে চলে যায়। শুরু হয় মিজের নিজেকে নতুন করে খুঁজে পাওয়ার গল্প। সেই গল্প এত সুন্দর করে বলা হয়েছে যে তা শুধু এই শো দেখলেই বোঝা যাবে। দুই সিজনেই তুখোড় অভিনয়দক্ষতা দেখিয়ে রেচেল ঝুলিতে পুরেছেন প্রাইমটাইম অ্যামি, গোল্ডেন গ্লোব, স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড, ক্রিটিকস চয়েস পুরস্কার।

আনন্দ দেওয়ার মতো চরিত্রের তালিকা অনেক, কাকে ছেড়ে কার কথা বলব! আমার সবচেয়ে ভালো লেগেছে মিজের ম্যানেজার সুজি মায়ারসনকে [অ্যালেক্স বরসটেইন]। দ্বিতীয় স্থানে আছেন মিজের বাবা এইব ওয়েজম্যান [টনি শ্যালহাব]। অভিনয়, সেট, কাহিনি, সিনেম্যাটোগ্রাফি এত ভালো যে বলার মতো নেতিবাচক কিছুই আমি খুঁজে পাচ্ছি না। এমনকি আমার দ্বিতীয় সিজন আরো বেশি ভালো লেগেছে।

এই বছরের শেষের দিকেই আসবে তৃতীয় সিজন [অ্যামাজন প্রাইমে]। অধীর অপেক্ষায় আছি। এখনো না দেখে থাকলে বলব, আসলেই মিস করছেন।

হ্যাপি ওয়াচিং!

জেরিন শবনম

সিরিয়ালখোর গ্রুপের পোস্ট

মন্তব্য