kalerkantho

শনিবার । ২৪ আগস্ট ২০১৯। ৯ ভাদ্র ১৪২৬। ২২ জিলহজ ১৪৪০

ক্রিকেট অন্তপ্রাণ তারকারা

২০ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ক্রিকেট অন্তপ্রাণ তারকারা

চলছে ক্রিকেট বিশ্বকাপ। প্রিয় দলের প্রিয় খেলোয়াড়ের পক্ষে সরব বিনোদনজগতের তারকারাও। হলিউড-বলিউডের ক্রিকেটপাগল তারকাদের নিয়ে লিখেছেন খালিদ জামিল

রাসেল ক্রো

নিউজিল্যান্ডের অস্কারজয়ী অভিনেতা রাসেল ক্রো ক্রিকেটের দারুণ ভক্ত। হবেনই না বা কেন, ক্রিকেট পরিবারেই তো তাঁর জন্ম। দুই চাচাতো ভাই মার্টিন ও জেফ ক্রো ছিলেন কিউইদের সাবেক ক্রিকেটার। নিজের দেশ নিউজিল্যান্ড ছাড়াও অন্য দেশের ক্রিকেটের নিয়মিত খবর রাখেন রাসেল। লর্ডসের কমেন্ট্রি বক্সেও কথা বলেছিলেন এই অভিনেতা।

 

হিউ জ্যাকম্যান

অস্ট্রেলিয়ান হিসেবে ক্রিকেটে আগ্রহ থাকাটাই স্বাভাবিক। তা আছেও হিউ জ্যাকম্যানের। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে বলেছিলেন, একটা সময় অ্যাশেজ চলাকালে প্রতিদিনই মাঠে হাজির থাকতেন। বন্ধুদের নিয়ে উপভোগ করতেন অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডের বিখ্যাত এই ক্রিকেট দ্বৈরথ। পরে অভিনয়ের ব্যস্ততা বেড়ে যাওয়ায় নিয়মিত খেলা না দেখলেও খোঁজখবর ঠিকই রাখেন। সাক্ষাত্কারে জ্যাকম্যান আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি পেস বোলার গ্লেন ম্যাকগ্রার বায়োপিকে অভিনয় করার।

 

মার্ক ওয়ালবার্গ

২০১৩ সালের ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস তাঁরই দল ছিল। এই দলে খেলেছিলেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসানও। অবশ্য এই টুর্নামেটের প্রতিষ্ঠাতা আজমল খান মার্ক ওয়ালবার্গের ঘনিষ্ঠ বন্ধু হওয়ায় ক্রিকেটের প্রতি এই মার্কিন তারকার ঝোঁকটা বেশি। তার মাধ্যমে আমেরিকায় খেলাটার জনপ্রিয়তাও আরো বাড়বে বলে আশা করেন ওয়ালবার্গ।

 

ড্যানিয়েল রেডক্লিফ

হ্যারি পটার অভিনেতা একবার স্বপ্ন দেখেছিলেন, ইংল্যান্ড অধিনায়ক অ্যান্ড্রু স্ট্রাউস তাঁকে ব্যাট হাতে তাড়া করছেন! তার পর থেকেই মনের মধ্যে একটা ভয় কাজ করত। সেটা অবশ্য রেডক্লিফ দূর করেছিলেন স্ট্রাউসের অটোগ্রাফ নিয়ে। ঘটনা ২০০৭ সালের, লর্ডস টেস্টের শেষ দিনে। সেবার শচীন টেন্ডুলকারেরও অটোগ্রাফ নিয়েছিলেন ‘হ্যারি’। এখন মাঠে ক্রিকেট না দেখা হলেও দিনের কয়েক ঘণ্টা কাটে ভিডিও গেমসে ক্রিকেট খেলে!

 

অমিতাভ বচ্চন

ভারতীয় তারকাদের মধ্যে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় ভক্ত বলা যায় অমিতাভ বচ্চনকে। নিয়মিতই খেলার বিশ্লেষণ করে পোস্ট দেন। তবে বৃষ্টিতে অনেক ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় বিশ্বকাপ নিয়ে বিরক্ত তিনি। মজা করে লিখেছেন, ‘বিশ্বকাপ দ্রুত ভারতে সরিয়ে আনা দরকার, আমাদের খুবই বৃষ্টি প্রয়োজন।’

 

শাহরুখ খান

ক্রিকেটের প্রতি শাহরুখ খানের ভালোবাসা কারো অজানা নয়। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ ও ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে তাঁর দল আছে। সময় পেলে নিজের দলকে সমর্থন দিতে মাঠেও হাজির থাকেন। শুধু   টি-টোয়েন্টি নয়, ওয়ানডে আর টেস্ট ম্যাচের ক্ষেত্রেও দারুণ ঝোঁক শাহরুখের। ছোটবেলায় নিজেও ভালো ক্রিকেট খেলতেন।

 

টিলডা সুইনটন

অস্কারজয়ী ব্রিটিশ অভিনেত্রী টিলডা সুইনটন এসেছিলেন বাংলাদেশেও। তখন থেকেই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ভক্ত কি না বলা মুশকিল। তবে তিনি বিশ্বকাপে টাইগারদের সমর্থন করছেন। ৫ জুন ওভালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশের জার্সি পরে গ্যালারিতে দেখা যায় টিলডাকে।

 

আনুশকা শর্মা

ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রিকেট তারকাদের একজন বিরাট কোহলির স্ত্রী তিনি। তাই আনুশকা শর্মাকে কি আর ক্রিকেটের খোঁজ না রাখলে চলে। ভারতীয় অধিনায়কের সঙ্গে ঘর করে ক্রিকেটের খুঁটিনাটি দিক সম্পর্কে ভালোই ধারণা আছে।

দেশে-বিদেশে যেখানেই ভারতের খেলা হোক ঠিকই মাঠে হাজির হয়ে যান আনুশকা।

মন্তব্য