kalerkantho

শুক্রবার । ১৯ জুলাই ২০১৯। ৪ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৫ জিলকদ ১৪৪০

ক্যামেরা ডি’অর

সিজারের হলো শুরু

৩০ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিজারের হলো শুরু

সেরা নবাগত পরিচালকের পুরস্কার ক্যামেরা ডি’অর নিয়ে উচ্ছ্বসিত সিজার ডিয়াজ

গুয়াতেমালার পরিচালক সিজার ডিয়াজ। লাতিন আমেরিকার চতুর্থ পরিচালক হিসেবে এবার জিতেছেন ক্যামেরা ডি’অর। প্রথম ছবির সেরা পরিচালককে দেওয়া হয় এই পুরস্কার। ডিয়াজ এবার হাজির হয়েছিলেন ‘আওয়ার মাদারস’ নিয়ে। ছবিটির প্রেক্ষাপট ১৯৭০ সালে গুয়াতেমালায় সংগঠিত ভয়াবহ গৃহযুদ্ধ। যে যুদ্ধে দুই লাখেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছিল, নিখোঁজ হয়েছিল ৪০ হাজারের বেশি। সিনেমার গল্প অবশ্য শুরু হয় এখনকার সময় থেকে। দেখা যায় আর্নেস্টো নামের এক যুবককে, যে ফরেনসিক বিভাগে কাজ করে। গৃহযুদ্ধের সময় নিখোঁজ মানুষকে নিয়ে একটা গবেষণা করছে। মাঠে নেমে তার সামনে আসতে থাকে একের পর এক চমকে ওঠার মতো তথ্য। আর্নেস্টোর এই কাজের পেছনে অন্য একটা উদ্দেশ্যও আছে—বাবাকে খুঁজে ফেরা। কারণ সেই সময় নিখোঁজদের মধ্যে আছে তার বাবাও!

বিভিন্ন উৎসবে প্রদর্শনের পর থেকেই ছবিটির জন্য প্রশংসায় ভাসছেন পরিচালক। কিছুদিন আগে ফ্রান্সের মর্যাদাপূর্ণ সোসাইটি অব ড্রামাটিক অথর অ্যান্ড কমপোজার অ্যাওয়ার্ডে সমালোচক পুরস্কার জিতেছেন।

পরিচালক সিজার মূলত তথ্যচিত্র নির্মাতা, আগে কাজ করেছেন সিনেমাটোগ্রাফার হিসেবেও। প্রথম চলচ্চিত্রেই এত প্রশংসা, পুরস্কারে যারপরনাই আপ্লুত তিনি, ‘এটা অসাধারণ ব্যাপার। এই ছবি নির্মাণে অনেক ব্যক্তিগত অনুভূতি, সত্য ঘটনা জড়িয়ে আছে।’ তবে ছবিটি নির্মাণ সহজ ছিল না। গুয়াতেমালার আইন-শৃঙ্খলার ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে কার্যত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হয়েছে পুরো টিমকে।

মন্তব্য