kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ১৭ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৭ সফর ১৪৪১       

ঘুম নেই চোখে

চলছে পরীক্ষা। সামনে ঈদ। আছে ঈদের গানের ব্যস্ততা। সব মিলিয়ে ফাতিমা তুয্ যাহরা ঐশীর চোখে ঘুম নেই। লিখেছেন ইসমাত মুমু

২৩ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঘুম নেই চোখে

দিনে বড়জোর চার ঘণ্টা ঘুমাতে পারছেন এখন। না, গানের জন্য নয়। তিনি শমরিতা মেডিক্যাল কলেজের ছাত্রী। চলছে পরীক্ষা, সে কারণেই ঘুমাতে পারছেন না। রমজান মাস হওয়ায় সুবিধাই হয়েছে তাঁর। এ সময় স্টেজ শো থাকে না। পুরো সময়টা পড়াশোনা করেই কাটাতে পারছেন। ‘আমাদের চারটি প্রফেশনাল পরীক্ষা দিতে হয়। প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় প্রফেশনাল এমবিবিএস, তারপর ফাইনাল। গতকালই আমার তৃতীয় প্রফেশনাল এমবিবিএস পরীক্ষা শেষ হলো। এখন চলছে ভাইভা। কয়েক দিন ধরে পড়াশোনার বাইরে কিছু ভাবতেই পারছিলাম না। ঈদের আগে পড়াশোনার চাপ কিছুটা কমবে। তখন গানে মনোযোগ দেব’—বললেন ঐশী।

রমজানের আগে গেয়েছিলেন ‘ইস্টিশন ২’। ঈদেই প্রকাশ পাবে গানটি। মাসুদ পথিকের ছবি ‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ’-এর গান ‘ইস্টিশন’। বেলাল খানের গাওয়া গানটি বেশ জনপ্রিয় হয়েছিল। সেটিরই সিক্যুয়াল গান এটি। গীতিকার মাসুদ পথিক আর সংগীত পরিচালক মুরাদ নূর মিলে করলেন ‘ইস্টিশন ২’। সংগীতায়োজনে মুশফিক লিটু।

আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দেওয়ার আগে ঐশীকে গানটির ডেমো শোনালেন তাঁরা। ঐশীর ভীষণ ভালো লাগল। নিজেই তাঁদের বললেন, ‘গানটি আমি গাইব।’ মাসুদ আর নূর সঙ্গে সঙ্গে বললেন, ‘গানটা তোমার জন্যই।’

ঐশী বলেন, “গানটির কথা ও সুরে ভীষণ মায়া। রেকর্ড করার পর আরো ভালো লাগল। সব গান তো সবার গলায় বসে না। কিছু কিছু গান আছে, একবার গাইলে মনে হয় গাইতেই থাকি। সে রকম একটা গান হচ্ছে এই ‘ইস্টিশন ২’।”

গানটির ভিডিও নির্মাণ করার কথা ছিল এরই মধ্যে। কিন্তু পরীক্ষার কারণে এত দিন করতে পারেননি। পরীক্ষা শেষে ফ্রি হয়েছেন, এবার করবেন। ঈদের আগ পর্যন্ত টানা রেকর্ডিং চলতে থাকবে। ঈদে আর কী কী গান প্রকাশ পাবে, এখনই সেটা জানাতে পারছেন না। রেকর্ডিং শেষেই বলতে পারবেন।

প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের বাইরে নিজের জন্য কিছু গান করে রেখেছেন ঐশী। এ বছরই অ্যালবাম আকারে প্রকাশ করবেন। ঐশী বলেন, ‘গান তো অনেকগুলো রেডি। যেগুলো আমার কাছে মনে হবে ভালো হয়েছে, সেগুলোই প্রকাশ করব। আপাতত এক্সপেরিমেন্ট চলছে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তির প্রজেক্টে আমরা সারা বছর গান করি। কিন্তু এগুলো আমার নিজ উদ্যোগে করা। আমার প্রথম অ্যালবাম ‘ঐশী এক্সপ্রেস’। ইচ্ছা আছে, বাছাই করা গানগুলো নিয়ে করব ‘ঐশী এক্সপ্রেস ২’।”

সম্প্রতি দুটি ছবিতে প্লেব্যাক করেছেন—‘মায়া’ ও ‘মায়াবতী’। ‘মায়াবতী’র গানটি ঐশীর কাছে একটু বেশি স্পেশাল। ফরিদ আহমেদের সুর-সংগীতে এটি লিখেছেন রফিকুজ্জামান। ঐশী বলেন, ‘রফিকুজ্জামান স্যারদের মতো গুণীজনদের লেখা গান গাওয়া তো আমাদের জন্য স্বপ্নই। সে কারণেই এটি আমার কাছে বিশেষ গান।’

ঐশীর মতে, গানের খুবই জমজমাট সময় এখন। প্রায় সবাই কাজ করছেন, সুযোগ পাচ্ছেন।

ঈদ এবার ঢাকাতেই করবেন। নোয়াখালীতে যাওয়া হবে না। কারণ ঈদের দিন একুশে টেলিভিশনের লাইভে গাইতে হবে তাঁকে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা