kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ওপারের জেমি এপারে

পশ্চিমবঙ্গের মেয়ে জেমি ইয়াসমিনের গানের শুরু বাংলাদেশে। প্রথম প্লেব্যাক ‘চুম্মা’ দিয়ে বাজিমাত করেন। এরপর অডিওতেও হিট ‘দুই দুবার’ গেয়ে। জেমিকে নিয়ে লিখেছেন সুদীপ কুমার দীপ

৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ওপারের জেমি এপারে

২০১৭ সালের ডিসেম্বর। পরিচালক উত্তম আকাশ ‘আমি নেতা হব’ ছবির জন্য সংগীত পরিচালক শ্রী প্রীতমকে দায়িত্ব দিলেন একটি ডান্স নাম্বার বানানোর। পর্দায় ঠোঁট মেলাবেন শাকিব খান আর বিদ্যা সিনহা মিম। প্রীতম ‘চুম্মা’ শিরোনামের একটি গানের ডেমো তৈরি করে শোনালেন পরিচালককে। গানে ব্যবহৃত মেয়ে কণ্ঠটি শুনে অবাক হলেন উত্তম। প্রীতমের কাছে জানতে চাইলেন, কে? প্রীতম বললেন, ‘নতুন একটি মেয়ে। প্লেব্যাক করতে চায়। আপনার পছন্দ না হলে ফাইনাল ভয়েস অন্য কাউকে দিয়ে গাইয়ে নেব।’ উত্তম বললেন, ‘না। মেয়েটির কণ্ঠে আলাদা একটা ব্যাপার আছে। তুমি ওকে দিয়েই ফাইনাল ভয়েস নাও। আগামী সপ্তাহে শুটিং।’ কে জানত এত দ্রুত কপাল খুলে যাবে জেমি ইয়াসমিনের! ডিসেম্বরে শুটিং হওয়া গানটি ইউটিউবে প্রকাশ পায় জানুয়ারিতে। এক রাতেই হয়ে গেল ইতিহাস! ঢাকাই চলচ্চিত্রের প্রথম কোনো গান মাত্র ১৬ ঘণ্টায় পেয়ে গেল এক মিলিয়ন ভিউ! জেমির কণ্ঠের প্রশংসা করলেন স্বয়ং শাকিব খান। প্রীতমকে জানিয়ে দিলেন, তাঁর পরের ছবিগুলোতে অন্তত একটা করে গান যেন জেমিকে দিয়ে গাওয়ানো হয়। ততক্ষণে জেমিকে হাতছানি দিচ্ছে বাংলাদেশের অডিও বাজারও।

ইউটিউব চ্যানেল নিউ ভিশন বিডি থেকে আসিফ আকবরের সঙ্গে প্রকাশ পায় তাঁর দ্বৈত গান ‘দুই দুবার’। কলকাতার অচেনা জেমি বাংলাদেশে এখন বেশ পরিচিত। তাঁর সঙ্গে দ্বৈত কণ্ঠ দিচ্ছেন আসিফ, ইমরান, বেলাল খানরা। বিষয়টি বেশ উপভোগ করছেন তিনি। ‘আমি ভাগ্যকে বিশ্বাস করি। কলকাতায় যখন প্লেব্যাকে গাওয়ার জন্য দিন গুনছি,   ঠিক তখনই ডাক পেয়েছিলাম ঢাকার ছবিতে। বুঝিনি প্রথম গানেই এমন সাড়া পাব। প্রথম দুই গানেই সময় বদলে গেল।’

পশ্চিমবঙ্গের বারাসাতে জন্ম হলেও জেমির বেড়ে ওঠা বেড়াচাঁপা অঞ্চলে। পরিবার তাঁর গান গাওয়ার ইচ্ছাকে সহজে মেনে নেয়নি। স্কুল শিক্ষক বাবাই  সবাইকে বুঝিয়ে মেয়ের ইচ্ছা পূরণ করেছেন। ছোটবেলায় মনতোষ চক্রবর্তীর কাছে গানে হাতেখড়ি। পরে আধুনিক গান শিখেছেন বিপ্লব ভট্টাচার্যের কাছে। শ্রী প্রীতমের সঙ্গে দেখা হওয়াটা নাকি কাকতালীয়, জানালেন জেমি। কলকাতার বাইরে একটি কনসার্টে আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন প্রীতম। সেখানে গান করতে গিয়েছিলেন জেমি। স্টেজে জেমির একের পর এক সফট, রক ঘরানার গান শুনে মুগ্ধ প্রীতম সেদিন রাতেই নাকি করেছিলেন লিখিত চুক্তি। জেমি এখন বাংলাদেশে শাহীন সুমনের ‘একটা প্রেম দরকার’, মালেক আফসারীর ‘পাসওয়ার্ড’, উত্তম আকাশের ‘বয়ফ্রেন্ড’ ও ‘প্রেম চোর’ ছবির প্লেব্যাক নিয়ে ব্যস্ত। ইমরানের সঙ্গে একটি গান করেছেন অডিওতে। কাজ করছেন নিজ দেশেও।

মুম্বাইয়ের অডিও কম্পানি ভেনাস মিউজিক থেকে আসবে জেমির ধারাবাহিক গান। চুক্তি হয়েছে গ্রিবস নামে আরেকটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গেও।

জেমি বলেন, ‘মাত্র এক বছরের ক্যারিয়ার। অথচ এর মধ্যে এত কিছু পেলাম। এখন সামলে রাখাটাই মূল লক্ষ্য। আমি কৃতজ্ঞ শ্রী প্রীতমের কাছে। তিনি না থাকলে হয়তো আমার স্বপ্ন কখনো পূরণ হতো না। বাংলাদেশের শ্রোতারাও আমাকে গ্রহণ করেছেন তাঁদের ঘরের মেয়ের মতো।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা