kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

আজ কিছু হতে চলেছে

বিশ্বকাপ ক্রিকেটের কোয়ার্টার ফাইনালে আজ বাংলাদেশের মুখোমুখি ভারত। কী ভাবছেন বিনোদন দুনিয়ার তারকারা...

   

১৯ মার্চ, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



আজ কিছু হতে চলেছে

ফাইনাল আমরাই খেলব

শাকিব খান

বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনাল খেলবে এমন স্বপ্ন প্রথম থেকেই দেখেছি। ওদের যা খেলা দেখেছি, এখন আমার বিশ্বাস বাংলাদেশ ফাইনালই খেলবে। আজ অবশ্যই ভারতের কপালে খারাবি আছে। মাহমুদ উল্লাহ যেভাবে ফর্মে আছেন, তাতে মনে হচ্ছে আজও তিনি সেঞ্চুরি করবেন। সেই সঙ্গে সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসান তো আছেনই। আমরা যদি আগে ব্যাট করি, তাহলে বোধ হয় সুবিধা হবে। সাড়ে তিন শ রানের একটা টার্গেট দিতে পারলেই বাকিটা মাশরাফি আর রুবেলের বিধ্বংসী বোলিংয়ে শেষ হবে।

আমরা ছেড়ে কথা বলব না

নিপুণ

ইংল্যান্ডের মতো দল কোনো পাত্তাই পেল না বাংলাদেশ দলের কাছে! পরের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডও বধ হতো। সামান্য ভুলের জন্য সেটা হলো না। যাহোক, আজকের বিজয় নিয়ে আমি আশাবাদী। ভারত খুবই ভালো খেলছে এবার। আমরাও আজকের ম্যাচে ছেড়ে কথা বলব না। আমার মনে হয়, ভারত আগে ব্যাট করলেই আমাদের সুবিধা। আমাদের বোলাররা দারুণ ফর্মে আছেন। ইংল্যান্ডের মতো ভারতের সঙ্গেও রুবেল হোসেন তাঁর আসল চেহারা দেখাবেন।

টসে জিতলে আগে ব্যাটিং

তাহসান খান

বাংলাদেশ-ভারতের কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচটি নিয়ে কয়েক দিন ধরে খুব চিন্তায় আছি। এবার আমাদের টিম দুর্দান্ত খেলছে। যার ফলে প্রত্যাশাটাও বেড়ে গেছে অনেক। আমার বিশ্বাস, আজকে আমরাই জয় লাভ করব এবং বিশ্ব ক্রিকেটে নতুন ইতিহাস রচিত হবে। আমাদের ক্রিকেটারদের টিম স্পিরিট দেখে মনে হচ্ছে ভারতকে মোকাবিলা করার জন্য তাঁরা পুরোপুরি তৈরি। পর পর দুই ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছেন মাহমুদ উল্লাহ। মনে হচ্ছে আজও একটা সেঞ্চুরি করে ফেলবেন। আজ তামিমের কাছে একটা ফিফটি চাই। সাকিব ও মুশফিকের কাছেও চাওয়া অনেক। তাঁদের সঙ্গে সৌম্য, সাব্বির, নাসিররা জ্বলে উঠতে পারলে দিনটা আমাদেরই হবে। আমাদের পেসাররাও আছেন দারুণ ছন্দে! মাশরাফি, রুবেল ও তাসকিনের পাশাপাশি স্পিনারদেরও দায়িত্ব নিতে হবে। টসে জিতলে আগে ব্যাটিং। তিন শ প্লাস স্কোর করতে পারলে ভারতকে চাপে ফেলা যাবে, জয়ও আসবে।

আজ কিছু হতে চলেছে 

ববি

আমাদের টিমওয়ার্কটা অনেক সুন্দর হচ্ছে। বোলাররা যেমন ভালো বোলিং করছেন, ব্যাটসমানরাও রান পাচ্ছেন। ইংল্যান্ডের সঙ্গে যে খেলাটা হয়েছে সেটা খেলতে পারলেই হবে। ভারতের ব্যাটিং ভালো। আমি মাশরাফি ও রুবেলের ওপর আস্থা রাখছি বেশি। ওদের যত কম রানে আটকানো যায় ততই আমাদের সুবিধা। সব কিছুর শেষ কথা আজ কিছু হতে চলেছে।

রিয়াদের কাছে প্রত্যাশা অনেক

এলিটা

আজকের খেলাটা নিয়ে আমি আছি অন্য রকম এক অনুভূতির মধ্যে। একদিকে নিজের দেশ বাংলাদেশ, অন্যদিকে বাংলাদেশের বাইরে আমার পছন্দের দল ভারত। কিন্তু মনে-প্রাণে চাই বাংলাদেশ যেন ভারতকে হারিয়ে সেমিফাইনালে চলে যায়। বাংলাদেশ দল এবার দারুণ ফর্মে। তাই জয়ের ব্যাপারে আমি খুব আশাবাদী। প্রত্যেকটা ক্রিকেটার নিজেদের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করছেন। কখনো দ্রুত উইকেট পড়লেও অন্যরা এসে সামলে নিচ্ছেন। এ জিনিসটা আমার ভালো লেগেছে। ব্যাটসম্যানদের পাশাপাশি আজ বোলারদেরও দায়িত্ব নিতে হবে। রিয়াদের কাছে আজকেও অনেক প্রত্যাশা। রুবেলকে যদি সঠিকভাবে ব্যবহার করা যায় আজও তিনি চমক দেখাতে পারেন। জয়-পরাজয় খেলারই একটা অংশ। ফলাফল যাই হোক আমরা যেন সেটা মেনে নিই। আর আমাদের কোনো খেলোয়াড়কে যেন অপমান না করি। মনে রাখতে হবে, তাঁরা বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন। সুতরাং সুসময়ের মতো দুঃসময়েও আমাদের উচিত তাঁদের পাশে থাকা।

আমাদের জেতার সম্ভাবনা আছে

বালাম

এবারের বিশ্বকাপে মনে হচ্ছে নতুন এক বাংলাদেশকে দেখছি। এই বাংলাদেশ আমাদের স্বপ্নের পরিধিও বাড়িয়ে দিয়েছে। আজকের ম্যাচে আমাদের জেতার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে। ভারত বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হলেও বাংলাদেশ খেলবে চাপমুক্ত হয়ে। এটা একটা বাড়তি অ্যাডভান্টেজ। ইংল্যান্ডকে হারানোর পর দলের সবাই খুব ফুরফুরে মেজাজে আছেন। দু-একজন ছাড়া সবাই ফর্মে আছেন। তামিমের কাছে চাওয়া তিনি যেন ইনিংসটাকে একটু টেনে নিয়ে যান। সাকিব যে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার এই ম্যাচে সে খেলা দেখাতে হবে। মাশরাফি যদি ইনিংসের শুরুতে ব্রেক থ্রু এনে দিতে পারেন, রুবেলও যদি তাঁর বেস্ট আউটপুট দিতে পারেন, আমাদের জন্য অনেক ভালো হবে। মোট কথা যে যে কারণে সেরা তাঁকে সেই খেলাটা খেলতে হবে। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং সবক্ষেত্রেই একনিষ্ঠভাবে মনোযোগ দিতে হবে। তবেই আমরা জিততে পারব।

 

 

মন্তব্য