kalerkantho

রবিবার । ৮ কার্তিক ১৪২৮। ২৪ অক্টোবর ২০২১। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আগুন আনছেন শুভ

আগামীকাল ভালোবাসা দিবসে মুক্তি পাচ্ছে আরেফিন শুভর নতুন ছবি \'অগি্ন\'। ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত এই ছবি ঘিরে ঢালিউড বেশ সরগরম। কিন্তু শুভ অতটা নড়েচড়ে বসছেন না। আছেন সময়ের অপেক্ষায়। ছবিটির সঙ্গে তাঁর অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে। সেগুলো নিয়ে কথা বলেছেন সুদীপ কুমার দীপের সঙ্গে। ছবি তুলেছেন নাভিদ তরু

   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আগুন আনছেন শুভ

গানের সঙ্গে শুভর শুভ সম্পর্ক। অনেক রাত ভোর হয়েছে গান শুনতে শুনতে। গিটারও বাজাতে পারেন তিনি। গুনগুন করে গাইতেও ভালোবাসেন। তবে প্লেব্যাকের কথা কখনো ভেবেছেন মনে হয় না। যদিও তা-ই করলেন এবং এতে তাঁর খুশি আর ধরে না। 'অগি্ন' ছবিতে 'সহে না যাতনা' গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন শুভ। ঠোঁটও মিলিয়েছেন গানটিতে। বললেন, 'অনেকটা জোর করেই গাইয়েছেন সংগীত পরিচালক। আমি ভাবিইনি গানটি সবার এত ভালো লাগবে। কেউ কেউ তো এখন বলছেন, আমার পেশাদার শিল্পী হওয়া উচিত। বিষয়টি নিয়ে আমিও ভাবছি।'

শুভ ক্যারিয়ারের প্রথম থেকেই এমন। যখন যা করেন, মন দিয়ে করেন। 'অগি্ন' ছবিটিই এর বড় উদাহরণ হতে পারে। প্রযোজকও অ্যাকশন দৃশ্যে শুভকে ডামি ব্যবহার করতে বলেছিলেন। কিন্তু তিনি নিজেই করবেন ঠিক করেছিলেন। শেষমেশ অবশ্য সামাল দিতে পারেননি। ডান হাত ভেঙে যায় তাঁর। প্রায় দুই মাস চিকৎসা নেওয়ার পর কোনো রকম সুস্থ হয়েছেন। তবে ডাক্তার তাঁকে ডান হাত দিয়ে ভারী কাজ করতে নিষেধ করেছেন।

সমালোচকরা 'অগি্ন' ছবিটিকে শুভর ক্যারিয়ারে অশনি সংকেত বলে ভাবছেন। পরিবারের সদস্যরাও শঙ্কিত। তাঁরা বলছেন, শুরুতেই এমন নায়িকাপ্রধান ছবিতে শুভর অভিনয় করাটা ঠিক হয়নি। এতে দর্শকরা হতাশ হবে। কিন্তু শুভ বলছেন অন্য কথা। তিনি নায়িকাপ্রধান ছবি না তিন নায়কের ছবি- এসব নিয়ে ভাবেনই না। হাসি দিয়ে বললেন, "আমি যখন 'পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনী' ছবিটি করছিলাম, তখনো সবাই এ কথা বলেছিলেন। ছবিটি মুক্তি পেলে তো সমালোচকরা আরো সোচ্চার হলেন। 'শুভর ক্যারিয়ার শেষ' বলে দীর্ঘশ্বাসও ছেড়েছিলেন। কিন্তু শেষে কী হলো? অল্প সময়ের উপস্থিতিতেও দর্শক আমাতে আকৃষ্ট হয়েছে। আমি বলব, এই ছবিতে কেউ লাভবান হলে আমিই হয়েছি। আর 'অগি্ন'তেও তা-ই হবে।"

শুভ কথার চেয়ে কাজে বেশি বিশ্বাসী। তবে স্বপ্ন দেখতে একদমই পছন্দ করেন না। জীবনের বেশির ভাগ স্বপ্নই নাকি তাঁর দুঃস্বপ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে। আর তাই কোনো কিছু নিয়েই চরম আশাবাদী হননি তিনি। বলেন, "'অগি্ন'র পরপরই মুক্তি পাবে মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের 'ছায়াছবি'। একই পরিচালকের 'তারকাঁটা'র শুটিং করছি এখন। আগামী জুনের মধ্যে আরো তিনটি ছবির কাজ শুরু করব। প্রতিটি ছবিই আমাকে নতুন করে জন্ম দেবে। গল্প, লোকেশন, গান, চরিত্র- সব কিছুই হবে সময়ের চাহিদা অনুযায়ী। আমি প্রথম থেকেই সংখ্যায় নয়, মানে বিশ্বাসী। আশা করছি ছবিগুলো আমাকে নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পেঁৗছে দেবেই।"

একনজরে শুভ

ছবির নাম মুক্তির সাল

জাগো ২০১০

পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনী ২০১৩

ভালোবাসা জিন্দাবাদ ২০১৩

অগি্ন ২০১৪

মুক্তিপ্রতীক্ষিত ও নতুন ছবি

১. ছায়াছবি

২. তারকাঁটা

৩. ওয়ার্নিং

 

 



সাতদিনের সেরা