kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অবশেষে আড়াই বছরের ‘বীর’ প্রকাশ্যে

এক বছর পর আজ শুটিংয়ে শাকিব-বুবলী

রংবেরং প্রতিবেদক   

১ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



এক বছর পর আজ শুটিংয়ে শাকিব-বুবলী

মা বুবলীর কোলে বীর

শাকিব খান, অপু বিশ্বাস, আব্রাম খান জয়, শবনম বুবলী ও শেহজাদ খান বীর—দেশীয় ছবির তিন তারকা ও তাঁদের সন্তানদের নিয়ে তর্ক-বিতর্ক চলছে অনেক দিন ধরেই। এর আগে অনেক গণমাধ্যমই ‘সত্য’ প্রকাশ করেছিল, কিন্তু সংশ্লিষ্টরা চুপ থাকায় বা অস্বীকার করায় সেসব ‘গুজব’ তকমা পেয়েছিল। গত সপ্তাহে (২৭ সেপ্টেম্বর) জয়ের জন্মদিনে ফেসবুকে পুত্রকে শুভেচ্ছা জানিয়ে শাকিব খানের দেওয়া পোস্টের পর একের পর এক গুজব যেন সত্যতা পেতে শুরু করেছে। পোস্টের এক জায়গায় শাকিব লিখেছিলেন ‘বাবারা কখনো শো অফ করে না, দেখিয়ে দেয়।

বিজ্ঞাপন

’ সম্ভবত এ কথাতেই তেলেবেগুনে জ্বলে উঠলেন বুবলী। কারণ তাঁর সন্তানের স্বীকৃতি ও স্ত্রীর মর্যাদা এখনো তিনি পাননি। ঠিক যে কারণে ২০১৭ সালে টিভি লাইভে পুত্র জয়কে কোলে নিয়ে হাজির হয়েছিলেন অপু বিশ্বাস। শাকিব খানের সঙ্গে ঘরোয়া পরিবেশে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে তোলা ছবি ফেসবুকে দিয়ে বুবলী লিখেছিলেন, ‘ফ্যামিলি টাইম’। সেটা সহ্য হয়নি অপুর। ‘স্ত্রীর মর্যাদা’ ও ‘সন্তানের সামাজিক স্বীকৃতি’ না পাওয়া অপু সেদিন গণমাধ্যমের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। বুবলীও ঠিক একই শঙ্কায় ভুগে দ্বারস্থ হলেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের।

শাকিবের পোস্টের এক ঘণ্টা না পেরোতেই পাল্টা এক পোস্টে নিজের বেবি বাম্পের দুটি ছবি প্রকাশ করলেন বুবলী। ক্যাপশনে লিখলেন, ‘মি উইথ মাই লাইফ। ফিরে দেখা, আমেরিকা। ’ দুই বছর আগে বুবলী যখন অন্তর্ধানে গিয়েছিলেন, তখন ‘গুজব’ রটেছিল, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় নিজেকে আড়াল করতে আমেরিকায় গেছেন বুবলী। এমনকি ‘বীর’ ছবির একটি গানের দৃশ্যে অন্তঃসত্ত্বা বুবলীর বেবি বাম্প চোখে পড়েছিল দর্শকের। এ নিয়ে তখন রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। বরাবরই বিষয়টি এড়িয়ে গেছেন শাকিব খান ও বুবলী দুজনই। বুবলীর পোস্ট আগ্রহী করে তুলল তাঁর ভক্ত ও  সাধারণ মানুষকে। ‘চাদর’ ছবির শুটিং করছিলেন বুবলী। গণমাধ্যমকর্মীরা সেদিনই সেখানে জমায়েত হলে এক পর্যায়ে সামনে আসতে বাধ্য হন বুবলী। গণমাধ্যমে বললেন, ঘটনার নেপথ্যে নিশ্চয়ই কিছু একটা আছে। শিগগির তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে সব কিছু জানাবেন। ২০২১ সালের জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে আড়াল থেকে প্রকাশ্যে এসে ঠিক একই কথা বলেছিলেন তিনি। গুজব যা ছিল, সেদিন পর্যন্ত তার মধ্যে শুধু একটাই প্রমাণিত হলো, মা হয়েছেন বুবলী। সন্তান ছেলে না মেয়ে, বয়স কত, বাবা কে? এসবের উত্তর তখনো মেলেনি। গতকাল সকালে হঠাৎ করেই গণমাধ্যমে চলে এলো মা বুবলী ও বাবা শাকিব খানের সঙ্গে আড়াই বছরের সন্তান শেহজাদ খান বীরের ছবি। এর কিছুক্ষণ পর ফেসবুকে আরো কয়েকটি ছবি দিয়ে অফিশিয়ালি ঘোষণা দিলেন বুবলী, ‘আমরা চেয়েছি একটি শুভ দিন-ক্ষণ দেখে আমাদের সন্তানকে সবার সম্মুখে আনতে। তবে আল্লাহ যা করেন, ভালোর জন্যই করেন, সেই সুখবরটি জানানোর জন্য আর বেশিদিন অপেক্ষা করতে হয়নি। শেহজাদ খান বীর আমার এবং শাকিব খানের সন্তান, আমাদের ছোট্ট রাজপুত্র। আমার সন্তান আমার গর্ব, আমার শক্তি। আপনাদের সবার কাছে আমাদের সন্তানের জন্য দোয়া কামনা করছি। ’ বুবলীর পোস্টের ২৫ মিনিট পর একই কথার কপি লিখলেন শাকিব খানও।

আজ শুটিংয়ে শাকিব-বুবলী

তপু খানের ‘লিডার—আমিই বাংলাদেশ’ ছবির শুটিংয়ে আজ একসঙ্গে অংশ নেবেন শাকিব ও বুবলী। তপু জানান, গত বছর ২৫ সেপ্টেম্বর এই ছবির শুটিংয়েই শেষবার তাঁরা ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। এরপর শাকিব চলে যান আমেরিকায়। তবে বুবলী নিয়মিতই শুটিং করেছেন অন্য নায়কদের সঙ্গে।

শাকিব-বুবলীর কি বিচ্ছেদ হয়েছে?

পুত্রকে পরিচয় করিয়ে দিতে যে পোস্টটি দিয়েছেন বুবলী, সেখানে বীরের সলো ছবি আছে, আছে মা ও বাবার সঙ্গে তোলা ছবি। অথচ শাকিবের পোস্টে শুধুই বীর ও তাঁর ছবি, বুবলী উপেক্ষিত। গত সপ্তাহে জয়ের জন্মদিন পালিত হলো শাকিবের বাড়িতে। সেখানে জয়কে নিয়ে গেলেন অপু। অথচ জয়ের সঙ্গে শাকিব-অপুর একসঙ্গে কোনো ছবি নেই। তবে অনেকেই বলছেন, শাকিব-বুবলী আলাদা থাকছেন, বিচ্ছেদ হয়নি। এবার দেশে ফিরে শাকিব বলেছেন, তিনি বিয়ের জন্য পাত্রী খুঁজছেন, শাকিব-বুবলীর বিচ্ছেদ সন্দেহের এটাও একটা কারণ।

আরো কিছু গুজব

শাকিব-অপুর পুনর্মিলন

বেশ কয়েক মাস ধরেই শোনা যাচ্ছে তিক্ততা ভুলে ফের এক হতে চলেছেন শাকিব খান ও অপু দম্পতি।

শাকিব-পূজা চেরী...

‘গলুই’ ছবির সহশিল্পী পূজা চেরীর সঙ্গে শাকিবের প্রেমের সম্পর্কের গুজব অনেক দিন ধরেই শোনা যাচ্ছে।

দ্বিতীয় না তৃতীয়

বীর কি শাকিবের দ্বিতীয় সন্তান না তৃতীয়? এই প্রশ্ন অনেকেই তুলেছেন সামাজিক মাধ্যমে। অপু ও বুবলীর আগে জুনিয়র শিল্পী রাত্রির ঘরে নাকি শাকিবের প্রথম সন্তান, নাম রাহুল খান।

বাবা শাকিব খানের কোলে পুত্র শেহজাদ খান বীর



সাতদিনের সেরা