kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ অক্টোবর ২০২২ । ২১ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জানা গেল বিচ্ছেদের কারণ

রংবেরং ডেস্ক   

১৯ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জানা গেল বিচ্ছেদের কারণ

ব্র্যাড পিট ও অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

ব্র্যাড পিট ও অ্যাঞ্জেলিনা জোলি দম্পতিকে ভক্তরা সম্বোধন করত একটি শব্দে, ‘ব্রাঞ্জেলিনা। ’ হলিউডের এই তারকা দম্পতির মধ্যকার সম্পর্ক সব সময় থাকত চর্চায়। আদর্শ দম্পতি বলতে যা বোঝায়, ব্রাঞ্জেলিনা ছিলেন তাই।

সবাইকে অবাক করে দিয়ে ২০১৬ সালে তাঁরা বিচ্ছেদের পথে হাঁটেন।

বিজ্ঞাপন

এরপর একে অন্যের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলেছেন, সম্পতি নিয়ে আদালতে মামলা পর্যন্ত করেছেন। কী এমন হয়েছিল যে হলিউডের সাবেক ‘আদর্শ দম্পতি’ বিচ্ছেদের পথ বেছে নিলেন? ছয় বছর পর জানা গেল সেই তথ্য।

ঘটনা ঘটে ব্যক্তিগত বিমানে চড়ে কোথাও যাওয়ার পথে। হঠাৎই জোলির ওপর চড়াও হন ব্র্যাড। জোলির কাঁধ ধরে ঝাঁকাতে থাকেন ব্র্যাড। চিৎকার করে বলেন, ‘তোমার জন্যই পরিবারের শান্তি নষ্ট হচ্ছে। ’ সাবেক এই দম্পতির এক সন্তান তখন বলে, ‘মা নয়, তোমার কারণেই পরিবারের শান্তি নষ্ট হচ্ছে। ’ ব্র্যাড তখন সন্তানকেও মারতে যান। সন্তানকে উদ্ধার করেন জোলি। পরে মার্কিন তদন্ত সংস্থা এফবিআইয়ের কাছে অভিযোগ করেছিলেন জোলি। এফবিআইয়ের এক এজেন্টের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এসব তথ্য। প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই ফ্লাইটে আরো কয়েকবার জোলিকে শারীরিকভাবে হেনস্তা করেন ব্র্যাড। কনুইসহ শরীরের আরো কয়েক জায়গায় আঘাত পান জোলি।

এ ছাড়া ব্র্যাডের বিরুদ্ধে মদ খেয়ে কয়েকবার মাতলামির অভিযোগ করেন জোলি। স্ত্রী, সন্তানের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ব্র্যাড, তবে মদ্যপানের অভ্যাসের কথা স্বীকার করেছিলেন তিনি।

২০১৬ সালের আগস্টে করা সেই অভিযোগের পর শিশু নির্যাতনের অভিযোগে ব্র্যাডের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে এফবিআই ও লস অ্যাঞ্জেলেসের শিশু ও পরিবারবিষয়ক দপ্তর। এরপরই ব্র্যাডের সঙ্গে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন জোলি।



সাতদিনের সেরা