kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০২২ । ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

আদালতে যাবেন ফারুকী, যদি...

রংবেরং প্রতিবেদক   

১৩ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আদালতে যাবেন ফারুকী, যদি...

‘শনিবার বিকেল’ ছবির একটি দৃশ্য

২০১৬ সালের ১ জুলাই ঢাকার গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় ১৭ বিদেশি নাগরিকসহ মোট ২০ জন নিহত হন। সারা দুনিয়া তোলপাড় করা এই ঘটনার আদলে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী নির্মাণ করেন ‘শনিবার বিকেল’। মাত্র এক শটে নির্মিত পূর্ণদৈর্ঘ্য ছবিটি ২০১৯ সালে চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে ছাড়পত্রের জন্য জমা দেন পরিচালক। বোর্ড সদস্যরা ছবিটি দেখে পরিচালকের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

বিজ্ঞাপন

শিগগিরই সেন্সর ছাড়পত্র দেওয়া হবে বলেও গণমাধ্যমে জানান তাঁরা। দুদিন পর ছবিটি দ্বিতীয়বার দেখা হয়, এরপর ছবিটিকে নিষিদ্ধ করে বোর্ড। গত সপ্তাহে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী একটি ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছিলেন, বোর্ডের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করেছিলেন তিনি? সাড়ে তিন বছর অতিবাহিত হলেও কোনো উত্তর তিনি পাননি? এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘শনিবার বিকেল’ নতুন করে আলোচনায় উঠে আসে। নির্মাতা, শিল্পী, সংস্কৃতিকর্মী, গণমাধ্যমকর্মী, এমনকি সাধারণ মানুষও ছবিটি দেখার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এই ঘটনায় নড়েচড়ে বসেছে আপিল বোর্ডও। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার কাছে আপিলের কাগজ চেয়েছে বোর্ড? বৃহস্পতিবার কাগজ জমা দিয়েছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি?

সম্প্রতি ফারুকীর আইনজীবী তানজিব-উল-আলম গণমাধ্যমে বলেন, ‘এক সপ্তাহের মধ্যে সিদ্ধান্ত না পেলে আমরা আইনি পদক্ষেপ নেব। ’ ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল অব সাউথ এশিয়ায় অংশ নিয়ে বর্তমানে কানাডায় রয়েছেন ফারুকী। সেখানে বসেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এই পরিচালক ঘোষণা দিলেন, “আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে যদি ‘শনিবার বিকেল’-এর ছাড়পত্র না পাই তাহলে আমরা আদালতের কাছে যাব। সেন্সর বোর্ডের এই অন্যায্য কাজের বিরুদ্ধে ভয়েস রেইজ করার জন্য আপনাদের সবার কাছে কৃতজ্ঞতা। ‘কথায় কথায় শেকল পরায় আমার হাতে পায়’—এই কালচার বন্ধ হওয়া উচিত। ”

বাংলাদেশের দর্শক দেখতে না পেলেও মিউনিখ, মস্কো, সিডনি, বুসান, প্যারিসসহ বিশ্বের বিভিন্ন চলচ্চিত্র উৎসবে ‘শনিবার বিকেল’ প্রশংসা কুড়িয়েছে? ফারুকী এখন কানাডার যে চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নিয়েছেন, সেখানেও আজ দেখানো হবে ‘শনিবার বিকেল’।

ছবিটিতে অভিনয় করেছেন ১২টি দেশের অভিনয়শিল্পী। যাঁদের মধ্যে আছেন ফিলিস্তিনের ইয়াদ হুরানি, ইউরোপের এলি পুসো, সেলিনা ব্লাক, বাংলাদেশের মামুনুর রশীদ, জাহিদ হাসান, নুসরাত ইমরোজ তিশা, ইরেশ যাকের, ভারতের পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়সহ অনেকেই।



সাতদিনের সেরা