kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জুন ২০২২ । ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

‘আমার সঙ্গে রোশানও আছেন এই নাটকে’

২০১৫ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত চলচ্চিত্রে তুমুল ব্যস্ত ছিলেন বিদ্যা সিনহা মিম। এই সময়ে ছোট পর্দার নাটকে খুব কমই দেখা গেছে তাঁকে। সম্প্রতি আবার ছোট পর্দায় নিয়মিত হচ্ছেন তিনি। মিমের সঙ্গে কথা বলেছেন সুদীপ কুমার দীপ

১৬ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘আমার সঙ্গে রোশানও আছেন এই নাটকে’

বিদ্যা সিনহা মিম

সঞ্জয় সমদ্দারের ‘মনের মানুষ’-এর পর ভিকি জাহেদের ‘কার্ণিশ’—একের পর এক ছোট পর্দার কাজ করছেন...

বিয়ের পরে পরিবার নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করেছি। ঈদের সময়ও দিল্লি ছিলাম পরিবারের সবাইকে নিয়ে। মাঝখানে সঞ্জয় সমদ্দার দাদা যোগাযোগ করলেন। তাঁর কয়েকটি নাটক দেখেছিলাম, খুবই ভালো নির্মাণ করেন।

বিজ্ঞাপন

তাই রাজি হয়ে গেলাম। এই নাটকের খবর প্রকাশ পাওয়ার পর ভিকি জাহেদও যোগাযোগ করলেন। তাঁর গল্পটাও চমত্কার। ছোট পর্দার এই দুই নির্মাতা কিন্তু এই সময়ের হেভিওয়েট। তাই ভিকিকেও ‘হ্যাঁ’ বলে দিলাম।

 

‘কার্ণিশ’-এর গল্পটা কেমন?

গল্প বলা পরিচালকের নিষেধ। শুধু এটুকু বলতে পারি, ৬০ মিনিটের গল্প, কোরবানির ঈদে চ্যানেল আইয়ে প্রচারিত হবে। আরেকটা তথ্য দিতে পারি। আমার সঙ্গে রোশানও আছেন এই নাটকে। এই প্রথম বড় পর্দার রোশানকে দেখা যাবে ছোট পর্দায়।

 

ঈদে আপনাকে কি আরো নাটকে দেখা যাবে?

সত্যি কথা বলতে মাঝখানে পাঁচ-ছয় বছর আমি নাটকে অভিনয় করিনি। করোনার মধ্যে দু-একটা নাটক করেছিলাম। রোজার ঈদেও তাহসান ভাইয়ের সঙ্গে দুটি নাটক করেছি। তবে এবার মোশাররফ করিম ভাইয়ের সঙ্গে ‘মনের মানুষ’ নাটকে অভিনয় করার পর এতটা পত্র-পত্রিকায় প্রচার হয়েছে যে একের পর এক নির্মাতা ফোন দিচ্ছেন। সবাইকে তো আর চিনি না। জানিও না তাঁরা কেমন নির্মাণ করেন। যখন বলি ঈদে আর কোনো নাটকে কাজ করব না, তাঁরা মন খারাপ করেন। আমাকে অতিরিক্ত পারিশ্রমিকও দিতে চান। ঈদের এখনো অনেক বাকি। এর মধ্যে হয়তো দু-একটা নাটকে কাজ করতেও পারি।

 

নতুন চলচ্চিত্রের খবর কী?

এই মাসেই নতুন একটি চলচ্চিত্রের শুটিং হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সময় দিতে পারিনি। এখন কাজে ফিরেছি। কিছুদিনের মধ্যেই নতুন চলচ্চিত্রের খবর দেব।

 

আপনার অভিনীত মুক্তিপ্রতীক্ষিত রায়হান রাফির ‘পরাণ’ ও ‘দামাল’-এর খবর কী?

এটা নির্মাতা বলতে পারবেন ভালো। আমি আসলে খোঁজখবর নিতে পারিনি। আশা করছি ছবি দুটির বিষয়ে খুব শিগগির নির্মাতা সব জানাবেন।



সাতদিনের সেরা