kalerkantho

বৃহস্পতিবার ।  ২৬ মে ২০২২ । ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৪ শাওয়াল ১৪৪

মিট লোফ—রক অ্যান্ড রোল কিংবদন্তির চিরবিদায়

মিরাজুল ইসলাম   

২৩ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মিট লোফ—রক অ্যান্ড রোল কিংবদন্তির চিরবিদায়

মিট লোফ [১৯৪৭—২০২২]

১৯৪৭ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডালাসে মারভিন লি অ্যাডে জন্মগ্রহণ করেন সেপ্টেম্বরের ২৭ তারিখে। পশ্চিমা সংগীতশিল্পী মিট লোফের মূল নামটি সময়ের স্রোতে চাপা পড়ে গেছে। জন্মের চার দিন পর তাঁর বাবা ডাকনাম দেন ‘মিট’ অর্থাৎ মাংস। কারণ সাড়ে ৯ পাউন্ড ওজনের শিশুটিকে দেখতে লাল টকটকে মাংসপিণ্ডের মতো লাগছিল।

বিজ্ঞাপন

পরবর্তী সময়ে ১৯৬৮ সালে যখন নতুন গানের দল গড়লেন, ডাকনাম মিটের সঙ্গে জুড়ে দিলেন ‘লোফ’। মিট লোফ নামে পশ্চিমা রক অ্যান্ড রোল জগতে বিখ্যাত হয়ে উঠলেন। যদিও পাসপোর্টে এমন নামের কারণে বিভিন্ন দেশের এয়ারপোর্টে তাঁকে বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়েছিল।  

বাস্তব জীবনেও মিট লোফ ছিলেন তাঁর নামের মতো পাগলাটে। কিন্তু খেপাটে হলেও প্রাণশক্তিতে ভরপুর অতিমাত্রায় আবেগী এই শিল্পী নিজ প্রতিভায় সারা বিশ্বের সংগীতপিপাসুদের মন জয় করে নিয়েছিলেন।

গত ২০ জানুয়ারি কভিডে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন গ্র্যামি পুরস্কারজয়ী মিট লোফ। অথচ এই কভিড টিকার বিপক্ষে সরব ছিলেন ৭৪ বছর বয়স্ক এই শিল্পী। মূলত ১৯৭৭ সালে ‘ব্যাট আউট অব হেল’ অ্যালবাম দিয়ে সবার নজর কেড়েছিলেন তিনি। বিশেষ করে রক গায়ক হিসেবে তাঁর কণ্ঠস্বর ছিল সবার চেয়ে আলাদা। গায়ক পরিচয়ের বাইরে তিনি প্রায় ৫০টি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ‘ফাইট ক্লাব’, ‘ফোকাস’, ‘রকি হরর পিকচার শো’, ‘ওয়েইনিস ওয়ার্ল্ড’ ইত্যাদি।

তবে রক অ্যান্ড রোল তারকা হিসেবে মিট লোফ পেয়েছেন কিংবদন্তির মর্যাদা। গত ছয় দশকে তাঁর বিক্রীত অ্যালবামের সংখ্যা ১০০ মিলিয়ন কপি ছাড়িয়ে গেছে। এর মধ্যে ‘ব্যাট আউট অব হেল’ অ্যালবামের প্রথম ও দ্বিতীয় খণ্ড বিক্রি হয়েছে ৪৭ মিলিয়ন কপি, যা পশ্চিমা সংগীতে বিক্রির তালিকায় সেরা দশে স্থান করে নিয়েছে। মিট লোফের জনপ্রিয় সিঙ্গেলের মধ্যে রয়েছে ‘আই উড ডু এনিথিং ফর লাভ’। গানটি ১৯৯৩ সালে চার্টে এক নম্বর স্থানে ছিল বহুদিন। এ ছাড়া ‘অবজেক্ট ইন দ্য রিয়ার ভিউ মিরর’, ‘গুড গার্লস গো টু হেভেন’, ‘লাইফ ইজ আ লেমন অ্যান্ড আই ওয়ান্ট মাই মানি ব্যাক’, ‘রক অ্যান্ড রোল ড্রিম কামস ট্রু’, ‘আই উড লাই ফর ইউ’ গানগুলো দারুণ জনপ্রিয়তা পায়।  

সমসাময়িক শিল্পীদের মধ্যে শের কিংবা অ্যালিস কুপারের মতে, মিট লোফের মতো সংগীতশিল্পী আগামী দিনে আর জন্ম নেবে না।



সাতদিনের সেরা