kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

‘মেরি কম’ প্রশ্নে একমত প্রিয়াঙ্কা

রংবেরং ডেস্ক   

১৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘মেরি কম’ প্রশ্নে একমত প্রিয়াঙ্কা

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

২০১৪ সালে ‘মেরি কম’ মুক্তির সময়ই উঠেছিল বিতর্কটা। মণিপুরের প্রখ্যাত এই বক্সারের চরিত্রে কেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া? কেন উত্তর-পূর্ব ভারতের কোনো অভিনেত্রীকে নেওয়া হলো না? এত দিন পর প্রসঙ্গটি নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী। ‘ভ্যানিটি ফেয়ার’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘অবশ্যই চরিত্রটিতে স্থানীয় কাউকে নেওয়া যেত। তবে অভিনেত্রী হিসেবে আমি ভীষণ লোভী, এমন চরিত্র পেয়ে খুশি হয়েছিলাম।

বিজ্ঞাপন

কারণ নারী হিসেবে তাঁর গল্প আমার কাছে সব সময়ই প্রেরণার। তাঁর চরিত্রে অভিনয় আমার ক্যারিয়ারে বিশেষ জায়গা করে নিয়েছে। ’ প্রিয়াঙ্কা অবশ্য স্বীকার করে নেন মেরির চেহারার সঙ্গে তাঁর কোনো মিলই নেই। দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে ভারতীয় অভিনেত্রী কথা বলেন নিকের সঙ্গে তাঁর বিচ্ছেদের গুজব নিয়ে। মাঝে নিজের নাম থেকে স্বামীর পদবি বাদ দেওয়ার প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিচ্ছেদের গুজব রটে। এ প্রসঙ্গ উড়িয়ে দিয়ে প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘আমি কোনো ছবি পোস্ট করলেই মানুষ খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে পর্যবেক্ষণ করে এবং নানা ধরনের জল্পনা করতে থাকে। অনেক তুচ্ছ বিষয়কেও বড় করে দেখা হয়। ’

২০০৪ সালে ‘এইতরাজ’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা। অভিনেত্রী হিসেবে যে ছবি তাঁকে রাতারাতি পরিচিতি পাইয়ে দেয়। এ প্রসঙ্গে একই সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে এমন নেতিবাচক না করতে অনেকেই বলেছিল। অনেক অভিনেত্রীর কাছে চরিত্রটি প্রত্যাখ্যাত হয়ে আমার কাছে আসে। মুক্তির পর আমাকে অবাক করে ব্যাপক প্রশংসিত হয় ছবিটি। অনেক বড় তারকা থাকলেও আমাকে নিয়ে শুরু হয় আলোচনা। ’

 

সূত্র : ভ্যানিটি ফেয়ার



সাতদিনের সেরা