kalerkantho

সোমবার । ৩ মাঘ ১৪২৮। ১৭ জানুয়ারি ২০২২। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বিয়ে করলেন তামান্না

বর ভারতীয় বংশোদ্ভূত

রংবেরং প্রতিবেদক   

৪ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিয়ে করলেন তামান্না

তামান্না হাসিন হুদা ছবি : সংগৃহীত

বিয়ে করলেন ‘ভণ্ড’ খ্যাত অভিনেত্রী তামান্না। সুইডেন থেকে খবরটি জানালেন অভিনেত্রী নিজেই। তাঁর বর ভারতের গুজরাতি বংশোদ্ভূত সুইডিশ ব্যবসায়ী মোহাম্মদ দাহইয়া। ২৬ নভেম্বর তাঁদের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় মাকে ভীষণ মিস করেছেন তামান্না। বলেন, ‘গত বছর আমি মাকে হারিয়েছি। অবশ্য দাহইয়াকে দেখে গিয়েছিলেন মা। খুব পছন্দও করেছিলেন। তাঁর পছন্দের ছেলের সঙ্গেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেছি। আজ মা বেঁচে থাকলে খুবই খুশি হতেন।’

দাহইয়ার সঙ্গে তামান্নার পরিচয় দুই বছর আগে। পরিচয়ের অল্প দিনের মধ্যেই মন দেওয়া-নেওয়ার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দাহইয়া সম্পর্কে তামান্না বলেন, ‘মানুষ হিসেবে ও খুবই ভালো। গেল দুই বছরে আমি তা বেশ ভালোভাবেই উপলদ্ধি করতে পেরেছি। তার মতো সুন্দর মনের একজন মানুষকে জীবনসঙ্গী হিসেবে পেয়েছি, আল্লাহর কাছে এ জন্য কৃতজ্ঞ। ও আমাকে ভীষণ কেয়ার করে, ভালোবাসে। জীবনে আর কী চাই! সবার কাছে দোয়া চাই, আমরা যেন সুখী হতে পারি, ভালো থাকতে পারি।’

তামান্নার পুরো নাম তামান্না হাসিন হুদা। শৈশব থেকেই পরিবারের সঙ্গে সুইডেন থাকেন, সেখানেই করেছেন পড়াশোনা। ক্লাস এইটে পড়ার সময় ১৯৯৫ সালে দেশে বেড়াতে এসে আফজাল হোসেনের নির্মাণে স্টারশিপ কনডেন্সড মিল্কের মডেল হন। এরপরই সুযোগ পান চলচ্চিত্রে অভিনয়ের। দুই যুগ আগে ‘ত্যাজ্যপুত্র’ ছবি দিয়ে ঢালিউডে তাঁর অভিষেক হয়। তবে তুমুল জনপ্রিয়তা পান শহিদুল ইসলাম খোকনের ‘ভণ্ড’ (১৯৯৮) ছবিতে রুবেলের নায়িকা হয়ে। ২০০৩ সালে সুইডেন ফিরে যাওয়ার আগ পর্যন্ত টানা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এ সময় তাঁকে দেখা গেছে ‘হৃদয়ে লেখা নাম’, ‘কঠিন শাস্তি’, ‘সন্ত্রাসী বন্ধু’, ‘তুমি আমার ভালোবাসা’, ‘অশান্তির আগুন’-এর মতো বেশ কিছু সফল ছবিতে। সুইডেন ফিরে গিয়ে ফের পড়াশোনায় মন দেন। পড়েছেন দন্ত চিকিৎসাবিদ্যায়।

২০১১ সালে ফের দেশে বেড়াতে এসে অভিনয় করেন ‘পাগল তোর জন্য’ ছবিতে। ২০১৩ সালে মুক্তি পায় ছবিটি। এটিই তামান্না অভিনীত মুক্তি পাওয়া সর্বশেষ ছবি।

আবারও বাংলাদেশে আসতে চান তামান্না। অভিনয় করবেন কি না তা না বললেও জানালেন, স্বামী দাহইয়াকে নিজের জন্মভূমি দেখাতে নিয়ে আসবেন। দুই-এক বছরের মধ্যেই ফিরবেন।



সাতদিনের সেরা