kalerkantho

শুক্রবার । ৭ মাঘ ১৪২৮। ২১ জানুয়ারি ২০২২। ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

‘হাউস অব গুচি’ নিয়ে

পরিবারের আপত্তি

রংবেরং ডেস্ক   

১ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পরিবারের আপত্তি

‘হাউস অব গুচি’তে লেডি গাগা ও অ্যাডাম ড্রাইভার

গেল সপ্তাহেই মুক্তি পেয়েছে রিডলি স্কটের নতুন ছবি ‘হাউস অব গুচি’। প্রথম দুই সপ্তাহে মোটামুটি ব্যবসা করেছে ছবিটি, তবে পাতরিিজয়া রেজ্জিয়ানি চরিত্রে গাগার অভিনয়ের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন দর্শক-সমালোচক। কিন্তু সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত এই ছবি এবার পেল মামলার হুমকি। ছবির গল্প প্রখ্যাত ইতালিয়ান ব্র্যান্ড ‘গুচি’র প্রতিষ্ঠাতা গুচিও গুচির নাতি মারিিসও গুচির পরিবার নিয়ে।

বিজ্ঞাপন

১৯৯৫ সালে মারিিসও ঘাতকের গুলিতে নিহত হন। পরে জানা যায়, সেই ঘাতককে ভাড়া করেছিলেন মারিিসওর সাবেক স্ত্রী রেজ্জিয়ানি! ছবিটি নিয়ে আপত্তি এসেছে গুচিও গুচির ছেলে আলডো গুচির পক্ষ থেকে। সোমবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘ছবিতে আলডো গুচিকে তুলে ধরার [চরিত্রটিতে অভিনয় করেছেন আল পাচিনো] আগে তাঁর সঙ্গে কেউ কথা বলার প্রয়োজন মনে করেনি। যিনি গুচি পরিবারের সদস্য তো বটেই, এ ছাড়া দীর্ঘ ৩০ বছর কম্পানির সভাপতির দায়িত্বও সামলেছেন। ছবিতে গুচি পরিবারের সদস্যদের ঠগ, অজ্ঞ হিসেবে দেখানো হয়েছে। মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে দেখলে এটা গুচি পরিবারের প্রতি চরম অপমান এবং খুবই বেদনাদায়ক ব্যাপার। ’ এ ছাড়া বিবৃতিতে ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে মামলার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়। পুরো ছবিটির প্রদর্শনী বাতিল নাকি বিশেষ কোনো দৃশ্যের প্রত্যাহার চান বিবৃতিতে তা অবশ্য বলেননি আলডো। তবে ছবিটিকে ঘাতক রেজ্জিয়ানির প্রতি সহানুভূতিশীল বলেও আখ্যা দেন তিনি। ‘হাউস অব গুচি’ নিয়ে গুচি পরিবারের আপত্তি এই প্রথম নয়। আগে এ নিয়ে আপত্তি ওঠার পর তা পাত্তা না দেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন পরিচালক রিডলি স্কট। ছবিতে রেজ্জিয়ানির চরিত্রে অভিনয় করেছেন লেডি গাগা। কিছুদিন আগে স্বয়ং রেজ্জিয়ানিও বলেছিলেন, অভিনয়ের আগে গাগা তাঁর সঙ্গে দেখা করেননি। পরে এক টক শোতে গায়িকা-অভিনেত্রী এ প্রসঙ্গে জানান, প্রয়োজন মনে করেননি বলেই রেজ্জিয়ানির সঙ্গে দেখা করেননি তিনি।

‘হাউস অব গুচি’ তৈরি হয়েছে ২০০০ সালে প্রকাশিত ‘দ্য হাউস অব গুচি—আ সেনসেশনাল স্টোরি অব মার্ডার, ম্যাডনেস, গ্লামার অ্যান্ড গ্রিড’ অবলম্বনে।

সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান



সাতদিনের সেরা